সোমবার, ০৬ এপ্রিল, ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬

রহমত আলীর জানাজায় মানুষের ঢল

গাজীপুর প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার ১০:২৭ পিএম

রহমত আলীর জানাজায় মানুষের ঢল

গাজীপুর: আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও গাজীপুর-৩ আসনের পাঁচবারের সংসদ সদস্য রহমত আলীর জানাজায় দলীয় নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গাজীপুরের শহীদ বরকত স্টেডিয়ামে জানাজায় দলীয় নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষের ঢল নামে। বিকেলে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা শেষে শ্রীপুরের রহমত ভবন জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে তার মরদেহ দাফন করা হয়। ঢাকা ও গাজীপুরে কয়েক দফায় জানাজা শেষে তার মরদেহ দাফন করা হলো।

রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন রহমত আলী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

মঙ্গলবার সকালে তার মরদেহ গাজীপুরে আনা হয়। সকাল ১০টায় গাজীপুরের শহীদ বরকত স্টেডিয়ামে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ হাসান রাসেল, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লাহ খান, সাধারণ সম্পাদক গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম ও গাজীপুর জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম প্রমুখ।

রহমত আলীর কফিনে ফুলের শ্রদ্ধা জানানোর সময় অঝোরে কাঁদলেন গাজীপুর সিটি মেয়র ও গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম।

জানাজা নামাজের আগে মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে আমি জানতে চেয়েছি গাজীপুর থেকে আপনাকে কে সহযোগিতা করেন, উত্তরে প্রধানমন্ত্রী সেদিন বলেছিলেন গাজীপুর থেকে রহমত আলী আমাকে সহযোগিতা করেন।

এ কথা বলে মেয়র বলেন, যেখানে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, রহমত আলী তাকে সহযোগিতা করেছেন, সেখানে আমরা কর্মী। আমাদের বলার আর কিছু নেই বলে কান্নায় ভেঙে পড়েন জাহাঙ্গীর আলম।

এরপর দুপুরে গাজীপুর সদর উপজেলার ভবানীপুরে মুক্তিযোদ্ধা কলেজ মাঠ ও বিকেল পৌনে ৪টায় শ্রীপুরের মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারি কলেজ মাঠে রহমত আলীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারি কলেজ মাঠের জানাজা কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে আশপাশের ভবনের ছাদ ও সড়কে নামে মানুষের ঢল।

শ্রীপুরের জানাজায় ইমামতি করেন মরহুমের বড় ছেলে যুক্তরাষ্ট্রের প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. জাহিদ হাসান তাপস। জানাজার আগে এই মুক্তিযোদ্ধাকে গার্ড অব অনার দেন শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামসুল আরেফিন।

তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শ্রীপুরবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন তার ছোট ছেলে গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জামিল হাসান দুর্জয়। জানাজা শেষে আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের মানুষ প্রিয় নেতার কফিনে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক স্থানীয় সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন সবুজ, শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শামসুল আলম প্রধান, ভাইস চেয়ারম্যান মাহতাব উদ্দিন, কাপাসিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমানত হোসেন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামসুল আরেফিন, শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য অ্যাডভোকেট হারুন অর রশিদ ফরিদ, কেন্দ্রীয় ওলামা দলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি পীরজাদা এসএম রুহুল আমিন, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহস্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বাচ্চু ও উপজেলা বিএনপি সভাপতি শাহজাহান ফকির প্রমুখ।

রহমত আলী একাধারে ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১, ২০০৮ ও ২০১৪ সালে শ্রীপুর-কালিয়াকৈর ও শ্রীপুর-কাউলতিয়া-মির্জাপুর আসন থেকে সংসদ সদস্য হন।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue