শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩ আশ্বিন ১৪২৭

রাজকীয় বৌ-ভাত সৌম্য সরকারের

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার ০৭:৫৯ পিএম

রাজকীয় বৌ-ভাত সৌম্য সরকারের

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা : জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ণ ইনিংস শুরু করলেন সৌম্য সরকার। ক্রিকেটের বাইশ গজে অনেক গুরুত্বপুর্ণ ইনিংস খেলেছেন। এবার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ণ ইনিংস শুরু। সৌম্যের স্ত্রী প্রিয়ন্তি দেবনাথের বাবা গোপাল দেবনাথ পেশায় ব্যবসায়ী ও মা মাধবী দেবনাথ গৃহিণী। তাদের বসবাস খুলনা মহানগরীর টুটপাড়া এলাকায়। পূজা বর্তমানে ও’ লেভেল পড়ছেন ঢাকার একটি কলেজে। তিন বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। সৌম্য সরকারের বাবা অবসরপ্রাপ্ত জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কিশোরী মোহন সরকার। মা নমিতা রাণী সরকার গৃহিণী। তিন ভাইয়ের মধ্যে সৌম্য ছোট।

এদিকে, বুধবার বিবাহ অনুষ্ঠান চলাকালে মোবাইল ফোন চুরিকে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে অবশেষে ধরা পরে সেই মোবাইল চোররা। তবে জমকালো আয়োজনে কনে প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজার সাথে সাত পাঁকে বাধা পড়লেন জাতীয় দলের এই ক্রিকেটার। রাজকীয় কায়দায় হয়ে গেল সৌম্য-পূজার বৌ-ভাত ও সংবর্ধনা। শুক্রবার (২৮ ফেব্রুয়ারী) রাতে সাতক্ষীরা শহরের মোজাফ্ফর গার্ডেনে বৌ-ভাত ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হয় তার বিবাহর আনুষ্ঠানিকতা। 

আমন্ত্রিত অতিথিদের আপ্যায়নের জন্য চলে জোর কর্মযজ্ঞ। তিন হাজারের অধিক অতিথিকে আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়।  সরজমিনে অনুষ্ঠানস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, মূল ফটক ছাড়াও আর ছয়টি গেট নির্মাণ করা হয়েছে। বউভাত অনুষ্ঠানে যেখানে নবদম্পতি বসবেন, সেই স্টেজটি রীতিমতো রাজকীয়। সেখানে যেতে এক্সাইলে পেরোতে হবে আরও ছয়টি ছোট ফটক। আটটার দিকে সৌম্য-পূজা আশির্বাদ মঞ্চে উঠেন। সৌম্য-পূজা দম্পত্তিকে দেখতে তিল ধারণের ঠাই ছিলনা শহরের অদুরে খড়িবিলায় মোজাফফর গার্ডেন এন্ড রিসোর্টে।

আমন্ত্রিত অতিথিদের আপ্যায়িত করা হয় শাহি নান রুটি, খাসির কালাভূনা, কাচ্চি বিরিয়ানি, মুরগির রোস্ট, গলদা চিংড়ি ভাজা, শাহি চাটনি, বোরহানি, জর্দা, দই, কোমল পানীয়, মিষ্টি পান ছাড়াও  কুলফি, ফুচকা ও কফি আপ্যায়ন করা হয়। সৌম্যর বৌ-ভাত ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় দলের আরেক ওপেনার এনামুল হক বিজয়, নাসির হোসেন। বৌভাতে আসতে পেরে উৎফুল্ল সবাই। 

জাতীয় দলের ক্রিকেটার সৌম সরকার ও তার নববধু পিয়ন্তি দেবনাথ পূজাকে ঘিরে অনেকেই সেলফি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। ছিলেন বিকিএসপির তরুণ ক্রিকেটাররা। এছাড়া সৌম্যর বৌভাতে অংশ নেন জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোস্তাফা কামাল, জেলা পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমানসহ উপস্থিত জেলা শীর্ষ কর্মকর্তারা। এসময় সৌম্য সরকার ও প্রিয়ন্তি পূজা দম্পত্তি দেশবাসির কাছে আশির্বাদ চান।

এ বিষয়ে সৌম্য সরকারের বাবা কিশোরী মোহন সরকার বলেন, সৌম্য শুধু আমার সন্তান নয়, দেশবাসির সন্তান। তাদের আগামি পথচলায় সবার আশির্বাদ কামনা করছি।

এছাড়া সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আনন্দঘন পরিবেশে সৌম্য সরকারের বৌভাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে। জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অতিথিরা যাতে নিবিগ্নে আসতে সেজন্য জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে সকল ব্যবস্থা করা হয়েছে।

গেল বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) রাতে খুলনা ক্লাবে জাঁকজমক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে  প্রিয়ন্তি দেবনাথের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েছেন জাতীয় দলের এই ওপেনার। বিয়ের সকল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে নববধূকে নিয়ে তিনি ফেরেন সাতক্ষীরা শহরের মধ্যকাটিয়ার নিজ বাড়িতে।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue