মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬

রেমিট্যান্স বাড়ানোর উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১১ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০১:৫৩ পিএম

রেমিট্যান্স বাড়ানোর উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার

ঢাকা : প্রবাসী আয় বৃদ্ধি এবং মানব পাচার প্রতিরোধে বিভিন্ন উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। এজন্য বিদেশে বাংলাদেশের দূতাবাসগুলোর কার্যক্রমকে গতিশীল করতে এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের হয়রানি বন্ধে বিশেষ পদ্ধতিতে উন্নত সেবা প্রদান করবে সরকার।

উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাধ্যমে আয় বৃদ্ধি এবং মানব পাচার প্রতিরোধে ডিসট্রেস কল পদ্ধতি চালুসহ নতুন বেশ কিছু প্রযুক্তিগত সুবিধাও চালু করা হচ্ছে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১ কোটি বাংলাদেশি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থান করলেও রেমিট্যান্স আয়ে বাংলাদেশ প্রতিযোগী দেশগুলোর চেয়ে অনেক পিছিয়ে। এছাড়া বর্তমানে মানব পাচারকারীচক্র অত্যন্ত সক্রিয় হওয়ায় বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে বিদেশে পাড়ি দিতে গিয়ে অনেক বাংলাদেশি প্রাণহানির শিকারও হচ্ছেন।

জানা গেছে, প্রবাসীদের ভোগান্তি নিরসনে বিদেশে বাংলাদেশ দূতাবাসগুলোর কার্যক্রম আরো ইতিবাচক ও গতিশীল করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছ থেকে যথাযথ সহযোগিতা না পাওয়ার অভিযোগ প্রবাসীদের দীর্ঘদিনের।  এজন্য প্রবাসে অবস্থানরত এবং বিদেশি যেতে আগ্রহীদের প্রযুক্তিগত সেবা প্রদানের ব্যবস্থ্থা চালু করা সম্ভব হলে একদিকে প্রবাসে অবস্থানকারী বাংলাদেশিরা যেমন উপকৃত হবেন তেমনি বিদেশে যেতে আগ্রহীরাও তাদের জন্য নিরাপদ নয়— এমন দেশগুলোতে দালালদের প্ররোচনায় জীবনহানির ঝুঁকি নিয়ে অবৈধভাবে যেতে নিরুৎসাহিত হবেন বলে সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন।

জানা গেছে, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উৎকর্ষতার এ যুগে প্রবাসীদের বিভিন্ন ধরনের সুবিধা নিশ্চিতকল্পে এবং বিভিন্ন ভোগান্তি এড়াতে পুরনো নিয়মের পরিবর্তে ডিজিটাল পদ্ধতিতে সেবা দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে কোনো কোনো ক্ষেত্রে প্রবাসীরা সশরীরে উপস্থিত না হয়েও বিভিন্ন সনদ, ছবি ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সত্যায়িত করতে পারবেন।

উল্লেখ্য, মানব পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে যাওয়ার প্রলোভনে সাম্প্রতিক সময়ে ভূ-মধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে  বেশ কিছুসংখ্যক বাংলাদেশি নিহত হন। এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধকল্পে সরকার বিভিন্ন ইতিবাচক পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে বলে সূত্র জানায়।
এছাড়া মিয়ামনারের বিতাড়িত এবং বাংলাদেশে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা যাতে কোনোভাবেই বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করে বিদেশে না যেতে পারে সে বিষয়েও সতর্ক অবস্থানে রয়েছে সরকার। ইতঃপূর্বে বেশ কিছু রোহিঙ্গা বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করে সৌদি আরবসহ কয়েকটি দেশে গিয়ে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত হওয়ায় বহির্বিশ্বে  বাংলাদেশের ইমেজ ক্ষুণ্ন হয়। ইমেজ রক্ষার্থে এ বিষয় নিয়ে সরকার কঠোর অবস্থান নিয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবাসী বাংলাদেশিদের সার্বিক নিরাপত্তা এবং সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে এবং মানবপাচার প্রতিরোধে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট সকল দপ্তর ও সংস্থাকে ইতোমধ্যে নির্দেশ দিয়েছেন। উল্লেখ্য, বাংলাদেশ বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রবাসী আয় অর্জনকারী দেশগুলোর মধ্যে একটি।

জানা গেছে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সাধারণত প্রবাসীদের শিক্ষা সনদ, জন্ম ও মৃত্যু সনদ প্রত্যয়নসহ সংশ্লিষ্টদের বেশ কিছু সেবা দিয়ে থাকে। অনেক ক্ষেত্রে দূতাবাসের অসহযোগিতা, অবহেলা এবং দুর্নীতির ফলে প্রবাসীরা অনেক ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন বলে দীর্ঘদিনের অভিযোগ রয়েছে। এজন্য ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রবাসীদের বিভিন্ন সেবা দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে মন্ত্রণালয়। ডিজিটাল ও উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে সরকারের পরিকল্পপনা বাস্তবায়নে এবং রেমিট্যান্স আয় বৃদ্ধির জন্য ইতোমধ্যে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দূতাবাস অ্যাপ নামে একটি ডিজিটাল পদ্ধতি চালুর উদ্যোগ নিয়েছে। শিগগিরই বাংলাদেশ দূতাবাসগুলো থেকে এ সেবা প্রদান শুরু হবে বলে জানা গেছে।

বর্তমানে একজন প্রবাসীকে নিজে উপস্থিত থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন সেবা নিতে হয়। অর্থাৎ দেশে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং বিদেশে সংশ্লিষ্ট মিশনে হাজির হয়ে সেবা নিতে হয়। অর্থাৎ একজন প্রবাসীকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সত্যায়ন করাতে চাইলে দূতাবাসে নিজে গিয়ে তা জমা দিতে হয়। এবং সংশ্লিষ্ট দূতাবাস থেকে প্রয়োজনীয় ফরম সংগ্রহের পর নির্ধারিত ফি ব্যাংকে জমা দিতে হয়। পরে ওই স্লিপটি দূতাবাসে জমা দিতে হয়। পুনরায় তাকে দূতাবাসে গিয়ে সত্যায়নকৃত কাগজপত্র সংগ্রহ করতে হয়। এসব কাজের জটিলতা এড়াতে কেউ কেউ দালালের সহযোগিতা নিতে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হন বলেও অভিযোগ রয়েছে। নতুন পদ্ধতিতে সশরীরে হাজির না হয়েও ডিজিটাল প্রক্রিয়ায় কোনো প্রবাসী এ সেবা নিতে পারবেন।

এজন্য দূতাবাস অ্যাপে অ্যাকাউন্ট খুলে প্রবাসী কোনো ব্যক্তি ছবি, শিক্ষা সনদ, পাসপোর্ট, জাতীয় পরিচয়পত্র অ্যাপে আপলোডের মাধ্যমে পাঠালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে সত্যায়িত সনদের কপি প্রবাসীর অ্যাকাউন্টে পাঠাবে। এরপর ওই কপিটি প্রিন্ট করে নিয়ে প্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহার করতে পারবেন সংশ্লিষ্ট প্রবাসী। জানা গেছে, প্রবাসী এবং বিদেশগামীদের সুবিধার্থে বিভিন্ন দেশে অবস্থিত বাংলাদেশ  দূতাবাস এ সেবা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত করা হবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা এ বিষয়ে জানান, প্রবাসীদের ভোগান্তি দূর এবং বিদেশগামীদের যাত্রা ঝামেলামুক্ত করতে সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে। এছাড়া মানব পাচার প্রতিরোধেও সরকার বদ্ধপরিকর বলে উল্লেখ করেন তিনি। তিনি বলেন, উন্নত দেশ বিনির্মাণ এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের স্বার্থ রক্ষায় সব ধরনের সহযোগিতা প্রদানের জন্য মন্ত্রণালয় থেকে প্রতিটি মিশনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, দালালচক্রের খপ্পরে পড়ে যাতে কোনো মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেজন্য মানব পাচার বন্ধে কঠোরতা অবলম্বন, জাল ভিসা প্রতিরোধ, যথাযথ ওয়ার্ক পারমিটের বিষয়টি নিশ্চিত করতে হেল্পডেস্ক স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি প্রবাসীদের নিরাপত্তা, চিকিৎসা ও বাসস্থানের বিষয়টিসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করার বিষয়েও মন্ত্রণালয় থেকে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানান, এক্ষেত্রে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় বিষয়গুলো নিয়মিত মনিটরিং করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি প্রবাসীরা যাতে দ্রুত ও ঝামেলামুক্তভাবে তাদের কষ্টার্জিত অর্থ দেশে স্বজনদের কাছে পাঠাতে পারেন এজন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গেও মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে নিয়মিত যোগাযোগ রাখা হচ্ছে।

এছাড়া কোনো প্রবাসী বিদেশে কোনো বিপদে পড়লে ডিসট্রেস কল সুবিধা চালুর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। মানব পাচার প্রতিরোধে এবং কোনো অভিবাসী বিদেশে বিপদে পড়লে এ ডিসট্রেস কল অ্যাপের নির্দিষ্ট মেন্যুতে তথ্য জানালে সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশ দূতাবাসের কনস্যুলার অথবা দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাৎক্ষণিক বিপদগ্রস্ত প্রবাসীকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার ব্যবস্থা করবেন বলে জানান তিনি।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue