শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

রোহিঙ্গা গণহত্যা তদন্তের অনুমোদন দিয়েছে আইসিসি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার ০৯:৪২ পিএম

রোহিঙ্গা গণহত্যা তদন্তের অনুমোদন দিয়েছে আইসিসি

ঢাকা : আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুতকরণসহ বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগ পূর্ণ তদন্তের অনুমোদন দিয়েছে। প্রস্তাবিত তদন্তের জন্য আইসিসি’র প্রসিকিউশন শাখার আবেদনের কয়েক মাস পর বহু প্রত্যাশিত পূর্ণ তদন্তের এ অনুমোদন দেয়া হলো।

আইসিসি’র এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ/রিপাবলিক অব দি ইউনিয়ন অব মিয়ানমার-এর পরিস্থিতি আইসিসি’র এখতিয়ারের আওতায় কথিত অভিযোগসমূহ তদন্তে এগিয়ে যাওয়ার জন্য প্রসিকিউটরকে অনুমতি দিয়েছে।’

এতে বলা হয়, তদন্তে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ হিসেবে বাস্তুচ্যুতকরণ এবং জাতিসত্ত্বা ও ধর্মের কারণে নির্যাতনের অভিযোগসমূহ যাচাই করা হবে।

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি)’র পক্ষে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা জনসংখ্যার ওপর গণহত্যা চালানোর জন্য মিয়ানমারের বিরুদ্ধে হেগে অবস্থিত জাতিসংঘ সমর্থিত আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতে (আইসিজে) মামলা দায়ের করার একদিন পর এ অনুমোদন দেয়া হলো।

আইন বিশেষজ্ঞ ও কূটনৈতিকরা বলেন, আইসিজে’র ওপর বিভিন্ন দেশের মধ্যকার বিরোধ নিষ্পত্তির দায়িত্ব অর্পিত। আর আইসিসি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে শাস্তিমূলক পদক্ষেপের সম্মুখীন করতে পারে।

গাম্বিয়া মিয়ানমারের বিরুদ্ধে একটি রক্তাক্ত সামরিক অভিযান চালিয়ে লাখ লাখ রোহিঙ্গাকে পার্শ্ববর্তী বাংলাদেশে বিতাড়িত করার মাধ্যমে জাতিসংঘ সনদ লংঘনের অভিযোগ এনে ‘মিয়ানমারের গণহত্যামূলক আচরণ অবিলম্বে বন্ধে’ আন্তর্জাতিক আদালতের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

চলতি বছরের জুলাইতে আইসিসি প্রসিকিউশন কার্যালয় আইসিসি’র সহকারী প্রসিকিউটর জেমস স্টুয়ার্টের বাংলাদেশ সফরের পর মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ সংঘটনের জন্য মিয়ানমারকে বিচারের সম্মুখীন করতে একটি আনুষ্ঠানিক তদন্ত শুরু করার জন্য আন্তর্জাতিক আদালতে অনুমতি প্রার্থনা করে।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue