সোমবার, ২৫ মে, ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

লুড্ডু খেলার প্রলোভনে প্রতিবন্ধী ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ মে ২০২০, শনিবার ১০:০১ এএম

লুড্ডু খেলার প্রলোভনে প্রতিবন্ধী ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা

ফাইল ছবি

ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহ শহরের উপশহর পাড়ায় মনির হোসেন (৫০) নামে একজনের বিরুদ্ধে বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী একটি মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। এ মামলায় আসামীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন ঝিনাইদহ সদর থানার পুলিশ। আসামী মনির হোসেন ফরিদপুর জেলার কোতয়ালী উপজেলার দক্ষিন টেপা খোলার বাসিন্দা।

জানা গেছে, বুধবার (১৩ মে) দুপুরের দিকে ঐ প্রতিবন্ধী ধর্ষিতা বমি বমি ভাব করলে তার মা'র সন্দেহ হয়। এরপর সে ঔষুধের দোকান থেকে প্রসাব পরীক্ষা করার জন্য কাঠি (বেবি টেস্ট) আনে। প্রসাব পরীক্ষার পর পজিটিভ দেখা দেয়। 

এসময় তার বাক প্রতিবন্ধী মেয়েকে ইশারার মাধ্যমে জানতে চাইলে তার মেয়ে ইশারার মাধ্যমে তাদের জানাই যে, মনির হোসেন গত দুই মাস পূর্বে দুপুরের দিকে তাকে মোবাইল ফোনে লুডু খেলার কথা বলে ডেকে এনে মনির হোসেন তার বাসার মধ্যে নিয়ে যায় এবং তার সাথে দৈহিক মেলামেশা করে। ধর্ষক মনির হোসেন ও ধর্ষিতার পরিবার একই মালিকের বাসায় ভাড়া থাকেন বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে ঝিনাইদহের সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, ধর্ষক মনির হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, গত  ১২ মার্চ দুপুরে ভ্যান চালিয়ে বাসায় এসে তার স্ত্রী বাসায় না থাকার সুযোগে মোবাইল ফোনে লুডু খেলার কথা বলে ঘরের মধ্যে নিয়ে ঐ প্রতিবন্ধী কিশোরীকে সে দুইবার ধর্ষণ করেছে। পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি জবানবন্ধি দিয়েছেন।

ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে, ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান আরো বলেন মনির হোসেনের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। যার মামলা নং ৯(১) জি আর নং- ২১০/২০। আসামীকে গ্রেফতার করে কোর্টের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

সোনালীনিউজ/এটি/এসআই


 

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue