সোমবার, ২০ মে, ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

শরণখোলায় মেম্বারের হাতে স্বাস্থ্যকর্মী লাঞ্ছিত

শরণখোলা (বাগেহরাট) প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১১ মে ২০১৯, শনিবার ০৯:৩৬ পিএম

শরণখোলায় মেম্বারের হাতে স্বাস্থ্যকর্মী লাঞ্ছিত

বাগেহরাট: জেলার শরণখোলায় ইউপি সদস্যের হাতে মো. জাকারিয়া ফরাজী (২১) নামে কমিউনিটি ক্লিনিকের এক (সি,এইচ,সি,পি) সদস্য শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার (১১ মে) সকালে উপজেলার রাজাপুর বাজার কমিউনিটি ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর আহত ওই স্বাস্থ্যকর্মীকে উদ্ধার করে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত জাকারিয়া বলেন, প্রায় এক বছর পূর্বে ধানসাগর ইউনিয়নের রাজাপুর এলাকার বাসিন্দা এ.কে.এম হাবিবুর রহমানের ছেলে ও ৭ নং পূর্ব রাজাপুর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. সাজেদুর রহমান আজাদ ওই কমিউনিটি ক্লিনিকের ফান্ডে জমা থাকা এক হাজার টাকা একটি সিলিং ফ্যান ক্রয় করে দেয়ার কথা বলে নিয়ে যায়। সম্প্রতি তাপদাহ বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্লিনিকে আশা স্থানীয় রোগীরা গরমের কারণে কষ্ট পেতে থাকে।

শনিবার ইউপি সদস্য আজাদ ওই ক্লিনিকে গেলে কর্তব্যরত কমিউনিটি হেলথ প্রভাইডার জাকারিয়া তার কাছে ফ্যান ক্রয়ের বিষয়টি জানতে চান। এ সময় আজাদ উত্তেজিত হয়ে রোগীদের সামনে জাকারিয়া কে এলোপাথাড়ী কিল, ঘুষি ও লাথি মেরে গুরুত্বর আহত করেন। এক পর্যায়ে উপস্থিত জনসাধারণ উত্তেজিত আজাদকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় জাকারিয়া শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়।

এ ব্যাপারে মো. সাজেদুর রহমান আজাদ বলেন, সামান্য টাকার বিষয় নিয়ে লোকজনের মাঝে ওই স্বাস্থ্যকর্মী আপত্তিকর মন্তব্য করেন তাই রাগন্বিত হয়ে সামান্য দু-একটি চড় থাপ্পর দিয়েছেন মাত্র। তবে ভুলবোঝাবুজির বিষয়টি জাকারিয়ার সঙ্গে মীমাংশা করে নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য প: প: কর্মকর্তা ডা. শেখ আবু সুফিয়ান রুস্তুম জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন এবং শিগগিরিই উভয়কে ডেকে নিষ্পত্তির চেষ্টা করবেন।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue