রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮, ৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

শাকিব খানের নতুন পরিকল্পনা

বিনোদন প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২১ অক্টোবর ২০১৮, রবিবার ১২:২২ পিএম

শাকিব খানের নতুন পরিকল্পনা

শাকিব খান

ঢাকা: ‘নিজের প্রযোজনা সংস্থা ছাড়া আর কারও যৌথ ছবিতে কাজ করবেন না শাকিব। তার কথায়, স্থানীয় প্রযোজনা সংস্থাগুলো যৌথ আয়োজনের ছবি নির্মাণ করতে গিয়ে নানা অনিয়ম করে আসছে। তাই সময়ের শীর্ষ এ নায়ক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এখন থেকে যৌথ প্রযোজনার সিনেমায় অভিনয় করলে সেই সিনেমাটি হবে তার প্রযোজনা সংস্থার। 
 
নিজের প্রযোজনা সংস্থা ছাড়া আর কারও যৌথ ছবিতে কাজ করবেন না তিনি। এই পরিকল্পনার কারণ জানাতে গিয়ে আক্ষেপের সুরে এই ঢালিউড নবাব বলেন, ‘স্থানীয় প্রযোজনা সংস্থাগুলো যৌথ আয়োজনের ছবি নির্মাণ করতে গিয়ে নানা অনিয়ম করে আসছে। নিয়ম-নীতির ধার ধারে না। এতে আমার অভিনয় করা সেই ছবিগুলো মুক্তি পেতে বাধার মুখে পড়ে।

শাকিব খান

ফলে আমার ক্যারিয়ারের ক্ষতি হয়। তাছাড়া স্থানীয় প্রযোজনা সংস্থাগুলো যৌথ প্রযোজনার ছবিগুলোতে অনিয়ম করায় সে ছবিকে কলকাতার ছবি হিসেবে আমদানি করতে গিয়েও প্রতিবন্ধকতার মুখে পড়ে। এ কারণে ছবিটি একসঙ্গে দুই দেশে মুক্তি দিতে না পারায় আগে কলকাতায় মুক্তি পেয়ে যায় বলে সেই ছবির ম্যারিট নষ্ট হয়ে যায়। নানাভাবে দর্শক ছবিটি দেখে ফেলে। পরে এখানে ছবিটি মুক্তি পেয়ে আর কাঙ্ক্ষিত ব্যবসা করতে পারে না। সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া ‘নাকাব’ ছবিটি এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ।’

শাকিব খান আরও বলেন, ‘যৌথ আয়োজনের সিনেমা নির্মাণে অন্য অনিয়মের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো-ওয়ার্ক পারমিট ছাড়াই বিদেশি নির্মাতা-শিল্পী কলাকুশলীদের এখানে এনে অভিনয় করানো,  এখানকার অভিনয় শিল্পী নির্মাতাদের  আনুপাতিকহারে কাস্ট না করা আরেকটি গুরুতর অভিযোগ। এসব কারণে যৌথ প্রযোজনার সিনেমা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। আর এ জন্যই সিদ্ধান্ত নিয়েছি এখন থেকে আমার নিজস্ব প্রোডাকশন হাউস এস কে ফিল্মসের সঙ্গে নির্মিত যৌথ আয়োজনের সিনেমাতেই শুধু অভিনয় করব। তাছাড়া স্থানীয় সিনেমাতে কাজ করতে গেলেও প্রযোজনা সংস্থা বেছে কাজ করব। আর নিজের প্রযোজনা সংস্থার মাধ্যমে নিয়মিত সিনেমা নির্মাণ করে দেশীয় চলচ্চিত্রশিল্পকে ছবির খরা থেকে উদ্ধার করতে চাই।’

শাকিব খান যে ঢাকাই চলচ্চিত্রের বরপুত্র তা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। দুই যুগ ধরে প্রায় অচল এই শিল্পটি শাকিব খানের ওপর নির্ভর করে টিকে আছে, এই বক্তব্য সিনেমা হল মালিকদের। ‘বাংলা চলচ্চিত্রে এখন এক থেকে ১০ নম্বর পর্যন্ত শাকিব খান, তারপর অন্য কোনো নায়ক’- ‘ভাইজান এলো রে’ ছবিটি দেখার সময় পেছন থেকে ভেসে এলো কথাটি। রুপালি পর্দায় তখন সেই ছবির ‘বেবি জান’ গানটি দেখা যাচ্ছিল। এরপর, কথা হয় নিজের সঙ্গে নিজের। 

সত্যিই তো তাই, গত কয়েক বছরে শাকিব খান নিজেকে যেভাবে পরিবর্তন করেছেন সেই বিবেচনায় ওপরের কথাগুলো মিথ্যা বলেননি পেছনের সিটে বসা মেয়েটি। বর্তমানে একমাত্র শাকিব খানের ছবি নিশ্চয়তা দিতে পারছে প্রযোজকদের। তাদের টাকা ফেরতের বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারছেন তিনি। শাকিব খান অভিনীত সিনেমা মানেই প্রযোজকদের নিশ্চয়তা। শত অপচেষ্টায়ও ঢালিউডের নবাব শাকিবকে কেউ ঢালিউড থেকে বিচ্ছিন্ন করতে পারবে না।
শাকিব খান বর্তমানে ব্যস্ত রয়েছেন শাহিন-সুমন পরিচালিত ‘একটি প্রেম দরকার’ সিনেমার কাজ নিয়ে। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে রাশেদ রাহা পরিচালিত সিনেমা ‘নোলক’।


সোনালীনিউজ/বিএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue