বুধবার, ২৬ জুন, ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬

শিক্ষককে মারধর : সেই কলেজের ছাত্রলীগের সভাপতি গ্রেপ্তার

আদালত প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৮ মে ২০১৯, শনিবার ০৩:২৪ পিএম

শিক্ষককে মারধর : সেই কলেজের ছাত্রলীগের সভাপতি গ্রেপ্তার

ঢাকা : পরীক্ষার হলে অনৈতিক সুবিধা না দেয়ার ঘটনার জের ধরে পাবনায় সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের এক প্রভাষকের ওপর হামলার মূলহোতা শামসুদ্দিন জুন্নুনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৮ মে) সকালে পাবনা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে জুন্নুন আত্মসমর্পণ করলে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। জুন্নুন সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের ছাত্রলীগ সভাপতি। এছাড়া বৃহস্পতিবার (১৬ মে) ভোরে ওই ঘটনায় এজাহার নামীয় দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৬ মে) পাবনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে মারপিটের শিকার বুলবুল কলেজের বাংলার শিক্ষক মাসুদুর রহমান ও তার সহকর্মীরা বলেছিলেন, রাজনৈতিক চাপে বুলবুল কলেজের অধ্যক্ষ ঘটনার মূলহোতা শামসুদ্দিনকে বাদ দিয়ে পাবনা সদর থানায় মামলা করতে বাধ্য হয়েছেন। জুন্নুনের জড়িত থাকা ও তাকে বাদ দিয়ে মামলা করা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে সংবাদপত্র ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমোলোচনার ঝড় ওঠে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার হিসেবে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) গৌতম কুমার বিশ্বাস জানান, প্রভাষক মাসুদুর রহমানকে মারধরের মামলায় শামসুদ্দিন জুন্নুন এজাহার নামীয় আসামি নন। তবে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শিবলি সাদিক জানান, আমরা আগেও বলেছি যেই ঘটনার সাথে জড়িত থাক না কেন সে শাস্তি পাক। শিক্ষক সমাজ দাবি করেছেন জুন্নুন ঘটনার মদদদাতা। এছাড়া সরকারের উচ্চ মহলেও জুন্নুনের গ্রেফতারের বিষয়টি আলোচিত হয়। তাই তার আত্মসমর্পণ করাই সমীচীন মনে হয়েছে আমাদের। আইন তার নিজ গতিতে চলবে।

এ দিকে বুলবুল কলেজ শিক্ষক সমিতির যুগ্ম সম্পাদন শাফিউল ইসলাম জানান, তারা এ গ্রেফতারে প্রাথমিকভাবে খুশি। তিনি জানান, শুধু গ্রেফতার নয় তার শাস্তি দেখতে চায় শিক্ষক সমাজ।

উল্লেখ্য, পরীক্ষার হলে অনৈতিক সুবিধা না দেয়ার ঘটনার জের ধরে পাবনায় সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের এক প্রভাষককে মারধর করার অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। প্রহৃত শিক্ষক ওই কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক মো. মাকসুদুর রহমান। তিনি অভিযোগ করেন, কলেজের প্রভাবশালী ছাত্রলীগ নেতা শামসুদ্দিন জুন্নুনের ইন্ধনে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue