শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৩০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

শূন্য রানে ৬ উইকেট নিয়ে নেপালি ক্রিকেটারের বিশ্বরেকর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার ০৯:১৭ পিএম

শূন্য রানে ৬ উইকেট নিয়ে নেপালি ক্রিকেটারের বিশ্বরেকর্ড

ঢাকা: অভিষেক ম্যাচ। সেই ম্যাচেই যদি হয়ে যায় বিশ্বরেকর্ড তাহলে তো আনন্দের শেষ থাকার কথা নয়। নেপালি ক্রিকেটার অঞ্জলি চাঁদেরও তাই হচ্ছে। ১৩ তম এসএ গেমসে সোমবার নেপালের ম্যাচ ছিল মালদ্বীপের বিরুদ্ধে।

অঞ্জলির দাপটে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে মালদ্বীপের ইনিংস। ২.১ ওভার হাত ঘুরিয়ে অঞ্জলি তুলে নেন ৬টি উইকেট। একটি রানও খরচ করেননি তিনি। মালদ্বীপের ছয় জন ব্যাটসম্যান রানের খাতা না খুলেই তাঁর বলে ড্রেসিংরুমে ফেরেন। তাঁদের মধ্যে তিনজনের গোল্ডেন ডাক। শেষ তিন উইকেট নিয়ে হ্যাটট্রিকও সেরে ফেলেন অঞ্জলি। বাঁ হাতি অঞ্জলির বিধ্বংসী বোলিংয়ে ১০.১ ওভারে মালদ্বীপ শেষ হয়ে যায় ১৬ রানে। ব্যাট  করতে নেমে নেপাল পাঁচ বলেই জেতার জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয়।  

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে দীপক চহার ৭ রানে ৬টি উইকেট নিয়েছিলেন। সেটা ছিল ছেলেদের টি টোয়েন্টি ক্রিকেটে সেরা বোলিং পারফরম্যান্স। এস এ গেমসের টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অঞ্জলি শূন্য রানে ৬টি উইকেট নেওয়ায় চহারের স্পেলকেও এখন ম্লান দেখাচ্ছে। ছেলে হোক বা মেয়ে — আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অঞ্জলির থেকে বিধ্বংসী বোলিং আগে কেউ কখনও করেননি। 

মালদ্বীপের ইনিংসের সপ্তম ওভারে বল করতে আসেন অঞ্জলি। সেই সময়ে মালদ্বীপ চার উইকেট হারিয়ে রীতিমতো ধুঁকছিল। স্কোর বোর্ডে তাদের রান তখন মাত্র ১৫। বল করতে এসে বাকি কাজটা করেন অঞ্জলি। মেয়েদের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অঞ্জলির আগে সব চেয়ে ভালো বোলিংয়ের রেকর্ড ছিল মালয়েশিয়ার মাস এলিসার। চীনের বিরুদ্ধে এলিসা ৬ রানে নিয়েছিলেন তিন-তিনটি উইকেট। সেই ম্যাচে ১৪ রানে অল-আউট হয়ে গিয়েছিল চীন। এদিন অঞ্জলি ছাপিয়ে গেলেন সবাইকে। গড়লেন নতুন বিশ্বরেকর্ড। 

সোনালীনিউজ/আরআইবি/এমএএইচ