বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯, ৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

শ্মশানে নিতেই নড়ে উঠলো দেহ, ছুটোছুটি করে পালালো গ্রামবাসী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার ০৭:১৪ পিএম

শ্মশানে নিতেই নড়ে উঠলো দেহ, ছুটোছুটি করে পালালো গ্রামবাসী

ঢাকা: সীমাচসল মল্লিক মারা গেছেন বলে ধরেই নিয়েছেন সবাই। তাই সে অনুযায়ী সাজিয়ে দেহ দাহ করতে শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর সাজানো কাঠের উপর চিত করে শোয়ানো হয় তাকে। ঠিক তখনই সীমাচসলের মাথা আচমকা নড়ে ওঠে। 

আর এসময় মৃতদেহ নড়ছে দেখেই পালাতে লাগেন শ্মশানযাত্রীরা। ভারতের ওড়িশার গঞ্জাম জেলার কপকহালা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যম জানিয়েছে, মৃতদেহ নড়ছে দেখে সবাই ছুটোছুটি শুরু করেন। বেশিরভাগই ভূত মনে করে পালিয়ে যান। হাতেগোণা কয়েকজন ছিলেন তারা দুঃসাহসে ভর করে ছুটে যান ডাক্তার ডাকতে। 

ডাক্তার এসে সব দেখে বলেন, ‘সীমাচসল মল্লিকের আসলে মৃত্যু হয়নি। কোনও কারণে সাময়িক হৃদস্পন্দন স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলো তার।’ এরপরেই তাকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে।

স্থানীয় প্রশাসন জানায়, গবাদি পশু চড়াতে শনিবার জঙ্গলে গেছিলেন সীমাচসল মল্লিক। সন্ধ্যার সময় সবগুলো ছাগল, ভেড়া ফিরে এলেও তিনি ফেরেননি। পরের দিন তাকে গ্রামের লোকেরা বেহুশ অবস্থায় দেখতে পান। শরীরে প্রাণের স্পন্ধন না থাকায় মৃত ভেবে বাড়িতে নিয়ে আসেন। শ্মাশানে যেতেই ঘটে সেই অঘটন। জীবন্ত হয়ে ওঠেন মৃত সীমাচসল মল্লিক!

এরপর চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পর ডাক্তার জানান, প্রচণ্ড জ্বরের ঘোরে সাময়িক বেহুঁশ হয়ে গেছিলেন পশুপালক। অতি ক্ষীণ হয়েছিল তার হৃদস্পন্দনও। চিকিৎসায় সাড়া দিয়ে এখন তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ এবং স্বাভাবিক। তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue