শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার হুমকি

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০১:০৭ পিএম

শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার হুমকি

ঢাকা: চলতি মাসের শেষ দিকে তিনটি ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে পাকিস্তান যাওয়ার কথা শ্রীলঙ্কার।নতুন করে সন্ত্রাসী হামলার হুমকিতে থমকে গেছে সিরিজের ভবিষ্যৎ! ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর পাকিস্তানে সফরে যায় না আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলুড়ে দলগুলো। অবশ্য দু-একটি ব্যতিক্রম আছে। তবে দেশটিতে পুরোপুরি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরেছে-এ কথা বলা যাবে না।

এ পরিস্থিতিতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয় শ্রীলঙ্কা। সেপ্টেম্বরের শেষে সেখানে সফর করতে চায় তারা। পাকিস্তানের সার্বিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেই এ সিদ্ধান্তে উপনীত হয় লঙ্কানরা। দেশটি সফর শেষে নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দলের সবুজ সংকেত পেয়েই এমন সিদ্ধান্ত নেয় দেশটি। স্বভাবতই আশায় বুক বেঁধেছিলেন পাকিস্তানের ক্রিকেট ভক্তরা। দীর্ঘদিন পর দুই জাতীয় দলের লড়াই দেখতে পাচ্ছেন তারা। তবে খুব সম্ভবত তাদের আশা পূরণ হচ্ছে না।

শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় জানিয়েছে, পাকিস্তান সফরে নতুন করে হামলার হুমকি পেয়েছে তারা। সেখানে খেলতে গেলে লঙ্কান ক্রিকেট দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে। ফলে ক্রিকেট মহলে আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত মঙ্গলবার হামলার তথ্য পেয়েই নড়েচড়ে বসেছেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) কর্মকর্তারা। এর মধ্যে সফর করার যৌক্তিকতা খুঁজছেন তারা। সব কিছুই নতুন করে ভাবছে বোর্ড। ‘নির্ভরযোগ্য’ সূত্রে পাওয়া সেই তথ্য যাচাই-বাছাই করে পাকিস্তান সফরে যাবে কিংবা প্রত্যাহার করবে বোর্ড।

পাকিস্তান সফরে হুমকির বিষয়টি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, দেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ-আলোচনার ভিত্তিতেই সিরিজের ভবিষ্যৎ নির্ধারিত হবে। অবশ্য এর আগেই পাকিস্তানে খেলতে যাওয়ার ব্যাপারে অসম্মতি জানিয়েছেন লাসিথ মালিঙ্গাসহ দলের ১০ সিনিয়র ক্রিকেটার। 

সোনালীনিউজ/আরআইবি/এমএএইচ