সোমবার, ২০ মে, ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

সাগরে ভাসছিল সাড়ে চার লাখ ইয়াবা!

কক্সবাজার প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার ১০:১৮ পিএম

সাগরে ভাসছিল সাড়ে চার লাখ ইয়াবা!

ফাইল ছবি

কক্সবাজার: কোস্টগার্ড সদস্যদের ধাওয়া খেয়ে মিয়ানমার থেকে আনা ইয়াবার চালান সাগরে ফেলেই পালিয়েছে পাচারকারীরা। কক্সবাজারের টেকনাফের সেন্ট মার্টিনের ছেঁড়াদিয়ার পূর্ব-দক্ষিণের বঙ্গোপসাগরে বুধবার (১৩ মার্চ) দিবাগত রাত দুইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

সাগরে ভাসমান সাড়ে চার লাখ ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করেছেন কোস্টগার্ড সদস্যরা। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

কোস্টগার্ডের টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট (বিএন) রায়হান তারিক এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান নৌকায় করে বাংলাদেশে পাচার করা হচ্ছিল। এ সময় কোস্টগার্ড সদস্যদের ধাওয়ায় বঙ্গোপসাগরে তা ফেলে পালায় পাচারকারীরা।

তিনি আরো বলেন, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে খবর ছিল যে সেন্ট মার্টিনে উপকূলবর্তী গভীর সাগর দিয়ে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান বাংলাদেশে পাচার করা হবে। সে কারণে ওই এলাকায় কোস্টগার্ডের টহল জোরদার করা হয়। পরে মিয়ানমারের দিক থেকে আসা একটি নৌকা জলসীমার শূন্যরেখা অতিক্রম করে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ে।

এ সময় কোস্টগার্ডের একটি টহল দল নৌকাটিকে থামার সংকেত দেয়। কিন্তু নৌকায় থাকা লোকজন না থেমে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় কোস্টগার্ড সদস্যরা ধাওয়া দিলে নৌকায় থাকা লোকজন কয়েকটি পলিথিনের বস্তা পানিতে ফেলে মিয়ানমারের জলসীমায় ঢুকে পড়ে। পরে ওই বস্তাগুলো থেকে ৪ লাখ ৫৫ হাজার ইয়াবা বড়ি পাওয়া যায়।

কোস্টগার্ড সূত্র জানিয়েছে, উদ্ধার করা ইয়াবাগুলো টেকনাফ থানা-পুলিশে সোপর্দের প্রক্রিয়া চলছে।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue