মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

সাড়া দিচ্ছেন না মোহাম্মদ নাসিম

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৭ জুন ২০২০, রবিবার ০৫:৫৬ পিএম

সাড়া দিচ্ছেন না মোহাম্মদ নাসিম

ফাইল ছবি

ঢাকা: সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিমের শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি নেই। তার জ্ঞান ফিরে আসেনি, রোববারও তিনি ডাকে সাড়া দিচ্ছেন না। নিবিড় পর্যবেক্ষণে ৭২ ঘণ্টা থাকার সময়সীমা শেষ হলেও আরও ২৪ ঘণ্টা তিনি চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে থাকছেন।

রোববার (৭ জুন)  এ তথ্য জানান মোহাম্মদ নাসিমের ব্যক্তিগত সহকারী ও বনানী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর মোশাররফ হোসেন।

শনিবার মোহাম্মদ নাসিমের চিকিৎসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়াকে প্রধান করে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। 

এই বোর্ডে রয়েছেন প্রখ্যাত নিউরোলোজিস্ট ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ ও প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এবিএম আবদুল্লাহ। তারা শনিবার মোহাম্মদ নাসিমের শারীরিক অবস্থা নিয়ে বোর্ড মিটিং করে জানান, ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে থাকবেন তিনি। আজ সেই সময় শেষ হলেও অবস্থার উন্নতি নেই সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রীর।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাধিকবার নাসিমের ছেলে তানভীর শাকিল জয় এবং অস্ত্রোপচারকারী চিকিৎসক ডা. রাজিউল হককে ফোন করে সাবেক এই স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সর্বশেষ শারীরিক অবস্থার বিষয়ে খোঁজ-খবর নেন।

মোহাম্মদ নাসিমের সবশেষ শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে মেডিকেল বোর্ডের সদস্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া রোববার দুপুরে বলেন, উনার অবস্থা অপরিবর্তিত। গত ২৪ ঘণ্টায় তার অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয়নি। মেডিকেল বোর্ড শনিবার বিকাল ৪টায় তাকে যে রকম দেখেছে, আজও তার অবস্থার কোনো পরিবর্তন নেই।

মোহাম্মদ নাসিম অচেতন অবস্থায় আছেন জানিয়ে ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, তার জ্ঞান কখন ফেরে সেটি বোঝা যাচ্ছে না। এ অবস্থায়ই আরও অনেক সময় থাকতে পারেন।

মোহাম্মদ নাসিমের সিটিস্ক্যান করা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, তিনি কোমায় আছেন। সিটিস্ক্যান করার মতো অবস্থায় তিনি নেই। সিটিস্ক্যান করতে গেলেও ঝুঁকি। অবস্থার উন্নতি হলে সিটিস্ক্যান করা হবে।

তিনি জানান, সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পালস গতকাল যে রকম ছিল এখনও সে রকম আছেন। এখনও ভেন্টিলেশনে আছেন। শ্বাস-প্রশ্বাস আগে যে রকম ছিল এখনও সে রকমটাই আছেন।

নাসিম সংকটাপন্ন অবস্থায় আছেন জানিয়ে কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, তিনি কোনো সাড়া দিচ্ছেন না এবং এ মুহূর্তে গভীর কোমায় আছেন।

রোববার নাসিমের ছেলে সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয় গণমাধ্যমকে জানান, বাবার অবস্থার উন্নতি-অবনতি নেই। অবস্থা আগের মতোই।

মোহাম্মদ নাসিম বর্তমান সরকারের খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি। তিনি আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের সমন্বয়কও তিনি। 

২০১৪ সালের নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগ সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান মোহাম্মদ নাসিম। এর আগে ১৯৯৬–২০০১ সালের আওয়ামী লীগ সরকারের সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

সোমবার সকালে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি হন নাসিম। পরে রাতে তার করোনা পরীক্ষার রিপোর্টে পজিটিভ আসে। এর মধ্যে তার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলেও শুক্রবার সকালে ব্রেন স্ট্রোক করেন। পরে তার অস্ত্রোপচার করা হয়। এর আগে ওয়ান ইলেভেনের সময় কারাবন্দি অবস্থায় স্ট্রোক করেছিলেন নাসিম। এবার দ্বিতীয়বার স্ট্রোক করলেন।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue