রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮, ৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

সুজনের বাবা হয়নি কেউই, ঠিকই মা হতে হয়েছে সোনিয়াকে

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০১৮, রবিবার ০৮:১৮ পিএম

সুজনের বাবা হয়নি কেউই, ঠিকই মা হতে হয়েছে সোনিয়াকে

ঢাকা : কতই বা বয়স হবে সোনিয়ার? তেরো কি চৌদ্দ। এই বয়সেই সোনিয়া নারীত্বের স্বাদ না বুঝে মা হয়েছে ২ বছর বয়সী সুজন মাঝির। মাতৃত্ব কি তা মোটেও বুঝে না পাগলিটা কিন্তু নাড়িকাটা সুজনকে এক মুহূর্তের জন্যও চোখের আড়াল হতে দেয় না সে।

নওগাঁর মান্দা থানার দেলুয়াবাড়ি গ্রামে বাস সোনিয়ার। সোনিয়ার মা রেসমা একটি হোটেলে কাজ করেন। পিতা হারানোর কারণে ক্ষুধার তাড়নায় মানুষের কাছে হাত পাততে হতো তাকে। প্রায় ৩ বছর আগের কথা! তখন সোনিয়ার বয়স ১০-১১ বছর হবে। দুর্বৃত্তের দুর্বিপাকে ক্ষণিকের জন্য সোনিয়ার ঠিকানা হয় ঠাকুরগাঁও জেলার চিলাহাটি রেল স্টেশন।

চিলাহাটি রেল স্টেশনে ভিক্ষাবৃত্তি করার সময় এক শহুরে চতুর ভিক্ষুকের জৈবিক ক্ষুধার শিকার হয় সোনিয়ার কিশোর দেহ, বলে অভিযোগ পাওয়া যায় স্থানীয়দের কাছ থেকে। কৈশোর কিংবা নারীত্ব বুঝে ওঠার আগেই সোনিয়াকে স্বাদ গ্রহণ করতে হয় বিষাক্ত মাতৃত্বের। মাতৃত্ব যে সবার জীবনেই আশীর্বাদ হয় না সোনিয়াই তার অনন্য দৃষ্টান্ত। সোনিয়া তার সন্তানের নাম রেখেছে সুজন মাঝি। সত্যিই সুজনকে জীবন তরীর দক্ষ মাঝি হয়ে পথ পাড়ি দিতে হবে এই আজব পৃথিবীর সাগর-মহাসাগরে।

সোনিয়ার কাছে তার বাবার নাম জানতে চাওয়া হলে সে বাবার পরিচয় দিতে পারেনি। একদিন সুজন মাঝিও তার বাবার পরিচয় জানবে না। পিতৃ পরিচয়হীন এই সোনিয়া কিংবা সুজন মাঝি মানব সভ্যতার প্রাগৈতিহাসিক যুগের জৈবিকতার ফসল। আজ সুজনের বাবা হয়নি কেউই কিন্তু ঠিকই মা হতে হয়েছে সোনিয়াকে। সন্তান জন্মদানের প্রক্রিয়াটা একই কিন্তু মহাজাগতিক নিয়মনীতির মারপ্যাঁচে হতভাগা কিছু শিশুকে পিতৃ পরিচয় থেকে বঞ্চিত হতে হয়।

এসব শিশুদের মধ্যে অনেকেই হবে রাষ্ট্রের জন্য মারাত্মক হুমকি। তাই রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনায় এসব শিশুদের আবাসনসহ সঠিক শিক্ষার মাধ্যমে দেশটাকে আলোর পথে ধাবিত করা আবশ্যক। কেননা এটাও ছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের আদর্শ। তিনি বলেছিলেন, ওদের পিতার নামের জায়গায় যেন আমার নাম লিখে দেয় আর ঠিকানার স্থান ধানমন্ডির ৩২ নম্বর।

সোনালীনিউজ/এমটিআই