শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

সেই গৃহকর্মী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৩ নভেম্বর ২০১৯, রবিবার ১০:০৮ পিএম

সেই গৃহকর্মী আটক

ঢাকা : ধানমণ্ডির জোড়া খুনের ঘটনায় নতুন নিয়োগ পাওয়া সন্দেহভাজন সেই গৃহকর্মীকে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের একটি বাসা থেকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

রোববার (৩ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে তাকে আটক করা হয়।

তিনি বলেন, আত্মগোপনে থাকা ওই তরুণীকে এখন গ্রেফতার না করলেও সে পুলিশের সার্ভারের মধ্যেই আছে। তার পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে। তাঁর স্থায়ী ঠিকানা পাওয়া গেছে। সেখানে অভিযান চালানো হয়েছে। কিন্তু সে ঘটনার পর  বাড়িতে কেন যায়নি। তার সঙ্গে আর কে কে আছে তা জানতে সময় নেয়া হচ্ছে। শিগগিরই তাঁকে গ্রেফতার করা হবে।

জানা যায়, ধানমণ্ডির ২৮ নম্বর সড়কের ২১ নম্বর বাড়ির চতুর্থ তলার ফ্ল্যাটে এই জোড়া খুনের ঘটনায় নতুন গৃহকর্মী হিসেবে নিয়োগ করা ওই তরুণীকে সন্দেহ করা হচ্ছে। ঘটনার আগে ওই ভবনের সামনে কয়েকজন সন্দেহভাজন নারী উপস্থিত ছিল বলে জানা গেছে। সন্দেহ করা হচ্ছে, হত্যাকাণ্ডের পর খুনিরা গাড়িতে করে পালিয়ে গেছে। পোশাক ব্যবসায়ী মনির উদ্দিন যে তরুণীর ছবি দেখালেন তাঁকে গত শুক্রবার বিকেলে তাঁর শাশুড়ি আফরোজা বেগমের ফ্ল্যাটে গৃহকর্মী হিসেবে নিয়োগ করা হয়। কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পর ওই ফ্ল্যাট থেকে আফরোজা (৬৫) ও তাঁর গৃহকর্মী দিতির (১৯) গলা কাটা লাশ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে গতকাল শনিবার আফরোজা বেগম ও দিতির মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান প্রভাষক ডা. কবির সোহেল সাংবাদিকদের জানান, দুজনের গলাসহ শরীরেই বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাতের একাধিক জখম ছিল। আফরোজার পেটে ও বুকেও ছুরিকাঘাত করা হয়। এর মধ্যে একটি আঘাত তাঁর কিডনি ভেদ করে। মূলত অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তাঁর মৃত্যু হয়। গলা কাটার কারণে গৃহকর্মী দিতির মৃত্যু হয়।

ময়নাতদন্ত শেষে মৃতদেহ দুটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি।

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue