মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭

সেই দিনগুলো খুব মিস করি

বিনোদন প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৪ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার ১০:৩০ পিএম

সেই দিনগুলো খুব মিস করি

ঢাকা : সময়ের অন্যতম সাহসী ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী আইরিন সুলতানা। এখনো সিনেমার শুটিংয়ের কাজ শুরু না করলেও ঈদের দুটি অনুষ্ঠানের শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন তিনি।

এ ছাড়া তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলের জন্য কিছু কাজ করেছেন। আইরিন প্রতিবছর ঈদ কাটান নিজের গ্রামের বাড়ি যশোরে। কিন্ত করোনার কারণে গত রোজার ঈদ ঢাকাতেই কাটিয়েছেন। রোজার ঈদের মতো কোরবানির ঈদও কাটিয়েছেন ঢাকাতে। অবশ্য আজই রওনা দিয়েছেন যশোরের উদ্দেশে।

কেমন কাটছে এবারের ঈদ জানতে চাইলে আইরিন সুলতানা বলেন, ‘ঈদকে কেন্দ্র করে কোন বিশেষ পরিকল্পনা নেই। বর্তমান পরিস্থিতিটাই একেবারে অন্যরকম। আমাদের নরমাল লাইফের ঈদের তুলনায় একেবারে ভিন্ন এ বছরের ঈদ। এখন তো আমাদের স্বাভাবিক জীবনই চলছে না। করোনাভাইরাসের কারণে অস্থির একটা সময় পাড় করছি আমরা। করোনার এই পরিস্থিতিতে বাড়িতে থাকাই সবার জন্য নিরাপদ। রোজার ঈদের মতো এই ঈদেও সারাদিন ঘরে কাটিয়েছি।'

তিনি আরও বলেন, ‌‌‌‘আমি সচারাচর ঈদের সময় গ্রামের বাড়ি যশোরে থাকি। গত ঈদের আগে কখনই ঢাকাতে ঈদ করিনি। করোনার কারণে গত ঈদে গ্রামে যেতে পারিনি। এবারও ঈদের দিন ঢাকাতেই কাটিয়েছি। আমরা প্রতি ঈদের সময় খাসি কোরবানি দেই। এবারও তাই করেছি। আজ গ্রামে যাচ্ছি। অনেকদিন হলো গ্রামের বাড়িতে যাওয়া হয় না।’

ছোটবেলার ঈদ সম্পর্কে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘ছোটবেলার ঈদগুলো ছিল অন্যরকম। সেই স্মৃতিগুলো সবসময়ই ভালো লাগার জায়গাতেই থাকবে। শৈশবে অপেক্ষায় থাকতাম কবে ঈদ আসবে। ঈদের নতুন জামা, জুতো, মেকআপ লুকিয়ে রাখতাম, যাতে ঈদের আগে কেউ না দেখে ফেলে। নতুন জুতা পায়ে ঘরের মধ্যে হাঁটাহাটি করতাম। জুতায় যাতে ময়লা না লাগে, সে দিকটাও খেয়াল রাখতাম।’

‘ঈদে সবার কাছ থেকে ঈদি নেওয়াটাও ছিল অনেক আনন্দের। এ ছাড়া ঈদের দিন সব বন্ধুরা মিলে ঘুরতে যেতাম। কে কয়টা জামা কিনেছি, কত জোড়া জুতা কিনেছি সবার সঙ্গে সেসব গল্পই করতাম। ছোটবেলায় ঈদ মানেই নানা বাড়িতে বেড়াতে যেতে হবে। সেই দিনগুলো খুব মিস করি,’ যোগ করেন আইরিন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই