সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

স্ত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ-স্বামীকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখা হয় গাছে

জামালপুর প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার ১১:৩১ এএম

স্ত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ-স্বামীকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখা হয় গাছে

জামালপুর : জামালপুরে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ ও তার স্বামীকে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ অপমৃত্যুর মামলা করলেও, ধর্ষণের মামলা নেয়নি বলে অভিযোগ নির্যাতিতা গৃহবধূর।  

সোমবার রাতে নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

শুক্রবার রাতে বাড়ি থেকে বের হলে তাকে তুলে নিয়ে প্রতিবেশী ছানোয়ার, শাওন ও রফিজ উদ্দিন ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীর।  তাকে গাছের সাথে বেঁধে মারধরও করা হয়।  এরপর তার স্বামী খলিলুর রহমানকে ডেকে নিয়ে মারধর করে হত্যার পর মরদেহ গাছে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করা হয়।

পরদিন সকালে পুলিশ খলিলের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায় এবং একটি অপমৃত্যু মামলা করে।  তবে হত্যা ও ধর্ষণের বিষয়ে পুলিশ কোন মামলা নেয়নি বলে অভিযোগ করেন ওই গৃহবধূ।

নির্যাতিত গৃহবধূ জানান, ‘জঙ্গলে নিয়ে আমার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছে।  ওরা আমার স্বামীকে মেরে ফাঁসিতে লটকে দিয়েছে। আমাকে বলেছে তোর স্বামী মারা গেছে।’

জামালপুর সদর থানার ওসি মো. সালেমুজ্জামান বলেন, ‘তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে এটা আত্মহত্যা কিনা।  গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এ কথাটা এখনও আমার কাছে আসেনি।  যদি তারা অভিযোগ দাখিল করে তবে আমি সকল ব্যবস্থা নিব।’

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue