শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

নড়াইল-২ আসন

স্বাধীনতা পরবর্তী সব চেয়ে জনপ্রিয় প্রার্থী মাশরাফি

নড়াইল প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৮ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার ০৩:০৫ পিএম

স্বাধীনতা পরবর্তী সব চেয়ে জনপ্রিয় প্রার্থী মাশরাফি

ফাইল ছবি

নড়াইল : স্বাধীনতা পরবর্তী নড়াইল-২ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচনের জনপ্রিয় প্রার্থী বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ইতিমধ্যে দেশে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন শেষ হয়েছে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন।

নড়াইল- ২ থেকে বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০০১ সালে নির্বাচন করেন। তিনি ঐ সময় বিএনপি-জামায়াত জোটের মুফতি শহিদুল ইসলামকে পরাজিত করে বিজয়ী হন। নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রী বিএনপি-জামায়াত জোটের প্রার্থী মুফতি শহিদুল ইসলামকে পরাজিত করতে পারলেও তার জন্য অনেক খড়কুটা পোড়াতে হয়েছিল।

তার আগেও নড়াইল-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা শরীফ খশরুজ্জামান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস,কে আবু বাকের এবং ২০১৪ সালে বিএনপি জোট বিহীন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জোট থেকে বাংলাদেশ ওর্য়াকাস পাটির এ্যড, শেখ হাফিজুর রহমান নির্বাচিত হয়েছিলেন।

বিগত নির্বাচনগুলিতে নিরপেক্ষ ও সকল দলের অংশ গ্রহনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের বিজয় সংখ্যা বেশী হলেও আকাশ-পতাল ব্যবধানে কখনও আওয়ামী লীগ বিজয়ী হতে পারেনি বলে নির্বাচনী তথ্যে মতে ও স্থানীয়দের সুত্রে জানা গেছে। তবে এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চিত্র একেবারেই আলাদা।
এবারে নির্বাচনে প্রতিকের চেয়ে ব্যক্তি মাশরাফি বিন মর্তুজার গুরুত্বটাই দিচ্ছেন নড়াইলের আপামর নড়াইলের জনতা। কি যুবক,কি যুবতি কি পুরুষ বা কি নারী। দলীয় নেতাকর্মীরা প্রতিক নিয়ে ভবনা চিন্তা করলেও জেলার দলের বাইরের সাধারণ মানুষেরা কেউ প্রতিক নিয়ে ভাবছেন না। মাশরাফি বিন মর্তুজা নড়াইলের গর্ব। তিনি নড়াইলকে দেশ থেকে দেশের বাইরেও পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। তিনি বিশ্বের মানচিত্রে নড়াইলকে চিনিয়েছেন।

মাশরাফি কারোর সন্তান,কারোর ভাই,কাণ্ডেরার ভাতিজা,কারোর ভাগিনা সর্বপরি মাশরাফি নড়াইলের সকল মানুষের । একারণে এবারের নির্বাচনে সকলেই মাশরাফিকে বিজয়ী করতে একাট্রা হয়েছে। ক্রিকেটের বরপুত্র মাশরাফি নড়াইলের সকল জনতার নয়ন মনি হয়ে উঠেছেন ।

বুধবার নির্বাচনীর প্রচারাভিযানের শেষ দিন পর্যন্ত তিনি মাত্র এক সপ্তাহ নির্বাচনী প্রচারে নেমেছেন। শুধু তিনি একই নন। তার সহধর্মীনি সুমনা হকও এ কদিনের প্রচারাভিযানে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নড়াইলের জনগনের কাছে স্বামীর জন্য ভোট চেয়েছেন। তারা জেলার যে প্রান্তেই গিয়েছেন সেখানেই তাদের জনসভা বা পথসভায় জনতার ঢল নেমেছে। নড়াইলবাসি এবার রেকর্ড সংখ্যক ভোটে তাদের প্রিয় সন্তানকে বিজয়ী করতে প্রস্তুত রয়েছে। সকল শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বিগত নির্বাচনে যারা বিজয়ী হয়েছেন তাদের প্রাপ্ত ভোটের সকল রেকর্ড ভেঙ্গে এবার মাশরাফি বিজয়ী হবেন।

কাগজীপাড়ার আক্তার হোসন বলেছেন, কোন দল বা প্রতিক দেখে নয়। মাশরাফি বিন মর্তুজা নড়াইলসহ বাংলাদেশের গর্ব। তিনি মানবিক গুনের অধিকার । মাশরাফি একজন সাদা মনের মানুষ। তিনি নির্বাচিত হলে নড়াইল তথা দেশের উন্নয়ন ঘটবে। তাই দল নয়,নয় কোন প্রতিক । ব্যক্তি মাশরাফি বিন মর্তুজাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে ভোট দিব।

সনজিৎ কুমার ভট্রাচার্য্য বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার পর নড়াইলে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন প্রার্থী হিসোবে মাশরাফি বিন মর্তুজা নির্বাচন করছেন। তাকে দলমত নির্বিশেষে নড়াইলের মানুষ ভালবেসে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবে। স্বাধিনতার পর এই প্রথম দেখলাম কোন প্রার্থীর জনপ্রিয়তা । তিনি বলেন,মাশরাফি ব্যপক ভোটে বিজীয় হবেন।

বেসরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষক নাজমুন নাহার বলেছেন, দল বা প্রতিক দেখে নয়। মাশরাফি নড়াইলের সন্তান। সে একজন ভাল মানুষ হিসাবে সর্বত্র আলাপ আলোচনা চলছে। সৎ ভাল মানুষ বর্তমানে রাজনিতিতে খুব কম পাওয়া যায়। কেউ সাধারণ মানুষদের ভাল নিয়ে চিন্তা করেন না। যারা নির্বাচিত হন তারা গরীব দুখি মানুষদের অবমূল্যয়ন করেন। মাশরাফি ক্রিকেটার সে রাজনিতির প্যাচ এখনও ভাল বোঝেন না। ফলে তার দ্বারা নড়াইলের উন্নয়ন হবে। ভাল মানুষ হিসাবে তাকে সকলেই ভোট দেবে ।

মিঠাপুর এলাকার মিঠু মোল্যা বলেছেন, যুবক ও নতুন ভোটাররা সকলেই ক্রিকেট তারকা মাফরাফি বিন মর্তুজার ভক্ত। শতশত যুবক নিজ খরচে মাশরাফির নির্বাচনী প্রচারাভিযানে অংশ গ্রহন করেছে। যা ইতিপুর্বে অনুষ্ঠিত কোন নির্বাচনে কোন প্রার্থীর জন্যই দেখা যায়নি। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে অসংখ্য ভক্ত এসেছে প্রিয় মাশরাফির নির্বাচন করতে। এত মানুষের অংশ গ্রহনে কারোর নির্বাচন করতে এর আগে আমি দেখিনী।

জেলা যুবলীগ নেতা মাহফুজুর রহমান বলেছেন, মাশরাফির নির্বাচনে সাধারণ মানুষের অংশ গ্রহন এই প্রথম দেখলাম। দলমতের উর্দ্ধে থেকে মানুষ মাশরাফিকে এবার ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন।

নড়াইল-২ আসনে মাশরাফির পক্ষে গন জোয়ার স্মৃষ্টি হয়েছে। এমন গন জোয়ার আগে কোন প্রার্থীই স্মৃষ্টি করতে পারেননি। মাশরাফিই একমাত্র প্রার্থী যিনি স্বাধিনতা পরবর্তী সব চেয়ে জনপ্রিয় প্রার্থী ।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue