শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

স্বামীকে খুন করে থানায় হাজির স্ত্রী

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, মঙ্গলবার ১০:২৯ পিএম

স্বামীকে খুন করে থানায় হাজির স্ত্রী

খুন করার পর এভাবেই রাখা ছিল লাশ

মুন্সীগঞ্জ: জেলার শ্রীনগরে স্বামীকে খুন করে থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছেন স্ত্রী। মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঘাতক স্ত্রী মাজেদা বেগম (৩২) শ্রীনগর থানায় এসে দায়িত্বরত পুলিশ অফিসারকে জানান, তিনি তার স্বামী অলিউল্লাহকে (৩৮) খুন করে ঘরে তালা দিয়ে রেখে এসেছেন।

মাজেদা বেগমের দেয়া তথ্য অনুযায়ী শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহিদুর রহমান উপজেলার পুটিমারা গ্রামের অলিউল্লাহর বসত ঘরের বারান্দা থেকে লাশটি উদ্ধার করেন। এ সময় অলিউল্লাহর হাত-পা ওড়না দিয়ে বাঁধা ও গলায় ওড়না পেঁচানো ছিল।

মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাতেই অলিউল্লাহর সৌদি আরবে যাওয়ার কথা ছিল। এর আগেই স্ত্রী তাকে হত্যা করেন।

অলিউল্লাহর সেজো ভাই দীন ইসলাম জানান, তার ভাই ১৮ বছর ধরে সৌদি প্রবাসী। মাঝে মাঝে দেশে আসতেন। ১৪ বছর আগে হাসাড়া গ্রামের নুরু খলিফার মেয়ে মাজেদা বেগমের সাথে তার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দুই ছেলে ও এক মেয়ে। প্রবাসে থেকেই স্ত্রীর নামে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার জমি কেনেন তার ভাই।

দীন ইসলাম আরো জানান, সর্বশেষ তিন মাস আগে তার ভাই অলিউল্লাহ দেশে এসে ওই জমি বিক্রি করে ব্যবসা করতে চান। এতে স্ত্রী বাধা দেন। উপায় না দেখে অলিউল্লাহ পুনরায় সৌদি আবর যাওয়ার চেষ্টা করেন। স্ত্রী তাতেও বাধা দেন এবং ভিসাসহ অলিউল্লাহর পাসপোর্টটি ছিঁড়ে ফেলেন। এ নিয়ে হাসাড়া ইউনিয়ন পরিষদে সালিশ হয়। পরে অলিউল্লাহ পুনরায় পাসপোর্ট বানিয়ে বিদেশ যাওয়ার উদ্যোগ নেয়। আর বিদেশ যাওয়ার আগের রাতেই স্ত্রী মাজেদা বেগম তাকে খুন করে বসেন।

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহিদুর রহমান জানান, অলিউল্লাহর লাশ উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে আর কেউ জড়িত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এইচএআর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue