বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৯, ৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

হাওরে মন না থাকলে চাকরি ছাড়ুন

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার ০৩:৩৪ পিএম

হাওরে মন না থাকলে চাকরি ছাড়ুন

কিশোরগঞ্জ: রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ বলেছেন, ‘আপনারা এলাকায় থেকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করুন। যদি প্রত্যন্ত এলাকায় থাকার মন-মানসিকতা না থাকে; তবে আপনাদের চাকরি ছেড়ে দেওয়াই ভালো।’

রোববার (১৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় কিশোরগঞ্জে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ সরকারি ডিগ্রী কলেজ প্রাঙ্গণে এক জনসভায় বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা বলেন।

স্ব স্ব কর্মস্থল থেকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য হাওর এলাকার সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে স্থানীয় এলাকার উন্নয়নের গতি বাড়াতে তাদের প্রতি আহ্বান জানান।

এ সময় রাষ্ট্রপতি হাওর এলাকায় দায়িত্বরত সরকারি কর্মকর্তাদের সতর্ক করে বলেন, ‘আপনারা এখানে যাই করেন, সততার সঙ্গে করবেন এবং এভাবেই এই এলাকার পাশাপাশি গোটা দেশ উন্নত হবে।’

রাষ্ট্রপতি তাদের সময়ের অপব্যবহার না করে নির্ধারিত সময়ে কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য নির্দেশনা দেন। হাওর এলাকায় মানসম্মত শিক্ষার অভাবের কারণে সেখানের ছেলে-মেয়েরা উপযুক্ত চাকরি না পাওয়ায় তিনি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এ কারণেই এই এলাকা পিছিয়ে পড়েছে বলে তিনি মনে করেন।

তিনি আর বলেন, ‘শিক্ষা মানে এসএসসি, এইচএসসি বা অর্নাস পাশ করা নয়, প্রতিযোগিতাপূর্ণ বিশ্বে চাকরির জন্য নিজেকে উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে হবে।’

ভালো চাকরি পেতে বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রতিযোগিতার জন্য নিজেদের গড়ে তোলার জন্য শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দেন রাষ্ট্রপতি। রাষ্ট্রপতি স্থানীয় উন্নয়ন উল্লেখ করে সব উন্নয়ন কাজের যথার্থ রক্ষণাবেক্ষণের ওপর জোর দিয়ে জনপ্রতিনিধি, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি এ ক্ষেত্রে সজাগ থাকার আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি নিজ জেলায় সপ্তাহব্যাপী সফরে থাকা রাষ্ট্রপতি আজ তার সফরের চতুর্থ দিনে সকল রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংস্থাকে চলমান উন্নয়ন কর্মকাণ্ড আরও গতিশীল করতে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘আমার একার পক্ষে তো আর সবকাজ করা সম্ভব নয়।’

রাষ্ট্রপতি হামিদ এখানকার সংযোগ সড়ককে হাওর অঞ্চলের লোকদের জন্য একটি বিরাট সুযোগ অভিহিত করে। এসব উন্নয়ন প্রকল্পের সুষ্ঠু ও যথাযথ ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করা সম্ভব হলে এটি একটি পর্যটন এলাকা হয়ে উঠতে পারে এবং তা এ অঞ্চলের পরিবর্তনের সহায়ক হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে, হাওর অঞ্চল থেকে সাতবারের নির্বাচিত সাবেক এমপি আবদুল হামিদ নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সাধারণ মানুষের সঙ্গে নির্বাচনের আগে যেমন করেছেন, তেমন ভালো আচরণ করার পরামর্শ দেন। রাষ্ট্রপতি দলমত নির্বিশেষে সকলকে টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করার জন্য কাজ করার আহ্বান জানান। স্থানীয় এমপি রেজোয়ান আহম্মদ তৌফিক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানও বক্তৃতা করেন।

রাষ্ট্রপতি এর আগে কলেজের ‘রশিদা খানম ছাত্রী হোস্টেল’- এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন এবং ইটনা-জাওয়ারহাট-হিজলজানি সড়কে ৫৯০ মিটার দীর্ঘ রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সেতুর নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সচিবগণ এবং স্থানীয় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue