শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

হুইল চেয়ারে বসেই মেয়র আতিকুলের অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার ০৭:১১ পিএম

হুইল চেয়ারে বসেই মেয়র আতিকুলের অভিযান

ঢাকা: মশার বিরুদ্ধে চিরুনি অভিযানে নামবেন, এই ঘোষণা আগেই দিয়েছিলেন মেয়র আতিক। ঘোষণার পরপরেই ডেঙ্গু মোকাবিলায় বিশ দিনের বিশেষ চিরুনি অভিযান শুরু করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। 

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) সকাল থেকেই রাজধানীর গুলশান-১ থেকে এ কার্যক্রমের শুরু হয়। 

তবে গুলশানস্থ ডা. ফজলে রাব্বী পার্কে অভিযানের উদ্বোধনে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে দেখা গেল হুইল চেয়ারে। অনুষ্ঠান স্থলে এসে স্ক্র্যাচে ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে চিরুনি অভিযানের উদ্বোধন করেন তিনি। উদ্বোধন শেষে এডিস মশার লার্ভার ধ্বংসের অভিযানে অংশ নেন মেয়র আতিকুল। হুইল চেয়ারে বসেই ঢুকে পড়েন ফজলে রাব্বী পার্কের পাশেই ১/এ নম্বর ৭ তলা বাড়িতে। প্রথমে হুইল চেয়ার পরে স্ক্র্যাচে ভর করে লিফটে উঠে যান ৭ তলায়। সেখানে সন্ধান পান ফেলে রাখা পরিত্যক্ত কমডে এডিস মশার লার্ভা।

হুইল চেয়ারে বসে অভিযানে এমন প্রশ্নে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, সোমবার (২০ আগস্ট) ডিএনসিসির মহাখালী এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। সে সময় ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া রোগের বাহক এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় পারটেক্স গ্রুপকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। আর সেই অভিযানে গিয়েই পা মচকে যায়। ডাক্তার বলেছেন পুরো রেস্টে থাকতে, কিন্তু আমি তো বসে থাকতে পারি না। তাই হুইল চেয়ারে বসেই এডিস মশার লার্ভা ধ্বংসের অভিযানে এসেছি।

মেয়র আরো জানান, উত্তরের পুরনো ৩৬টি ওয়ার্ড দশটি ভাগে ভাগ করে প্রতি ভাগে দশটি টিম কাজ করে। প্রথম ধাপে বসতবাড়ির ভেতর ও এর আশেপাশে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে এসব বাড়ি চিহ্নিত করে সতর্ক করা হবে। তবে, পরের ধাপে অর্থাৎ শেষ দশ দিনে একই জায়গায় লার্ভা পাওয়া গেলে জরিমানা করা হবে। 

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue