শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

হ্যাটট্রিক ম্যান আলিসের বোলিং অ্যাকশন প্রশ্নবিদ্ধ

ক্রীড়া প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০১৯, মঙ্গলবার ০৮:০০ পিএম

হ্যাটট্রিক ম্যান আলিসের বোলিং অ্যাকশন প্রশ্নবিদ্ধ

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের নবম ম্যাচে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্সকে একাই গুড়িয়ে দিয়েছিলেন আলিস ইসলাম। এই অখ্যাত স্পিনারের হ্যাটট্রিকে ভর দিয়েই মাশরাফির রংপুরকে হারিয়েছিল ঢাকা ডায়নামাইটস। পেয়েছিলেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কারও। কিন্তু হ্যাটট্রিক আর জয়ের আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি আলিসের। বড়সড় প্রশ্ন উঠেছে তার বোলিং অ্যাকশন নিয়ে।  

শিগগিরই দ্রুততম সময়ের মধ্যে বোলিং অ্যাকশনের পরিক্ষা দিতে হবে ঢাকা ডায়নামাইটসের স্পিনার আলিস ইসলামকে। প্রশ্নবিদ্ধ বোলিং অ্যাকশনের জন্য অভিযুক্ত ক্রিকেটারদের নিয়ম অনুযায়ী অভিযোগের দিন হতে ১৪ দিনের মধ্যে বোলিং অ্যাকশনের পরিক্ষা দিতে হয়। ১১ জানুয়ারি থেকে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছিল আলিসের বোলিং অ্যাকশন। তাই ১৪ দিন পর্যন্ত ম্যাচ খেলতে বাধা নেই তার। এরপর বোলিং অ্যাকশন পরিক্ষা দিয়ে পাশ করতে পারলেই তবে আবার বল হাতে দেখা যাবে এই স্পিনারকে।

এ প্রসঙ্গে বিসিবির বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, আমাদের বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটির নিয়মটা সব ঘরোয়া প্রতিযোগিতার জন্য। সে নিয়ম অনুসারে, কারো ব্যাপারে আম্পায়ার প্রশ্ন তুললে পরবর্তী ১৪ দিনের মধ্যে তাকে আমাদের সামনে পরীক্ষা দিতে হয়।

সেখানে যদি দেখি অ্যাকশন ঠিক আছে, তাহলে খেলা চালিয়ে যেতে সমস্যা নেই। আর অ্যাকশনে সমস্যা থাকলে সেটি পুনর্বাসনের মাধ্যমে ঠিক করতে হবে। আলিসের বেলায়ও এ নিয়ম প্রযোজ্য। এ দুই সপ্তাহ ও খেলতে পারবে।

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ম্যাচে একাই রংপুরকে গুড়িয়ে দিয়েছিলেন আলিস। ম্যাচ শেষে প্রেস বিজ্জ্বপ্তিতে আলিসের বোলিংয়ে দুসরার অ্যাকশন অবৈধ বলে অভিযোগ করে রংপুর। এরপর ম্যাচের উভয় আম্পায়ার অভিযোগটা আরো বড় করে নিয়ে আসেন। আম্পায়াররা অভিযোগ আনেন, আলিসের প্রায় প্রতিটি বোলিং অ্যাকশনে সমস্যা আছে বলে তারা মনে করেন। আর তাই আম্পায়ার ও রংপুরের অভিযোগকে আমলে নিয়ে বোলিং অ্যাকশন পরিক্ষা দিতে আলিসকে নোটিশ দেওয়া হয়।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই