রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯, ২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

৭০০ গোল করে বিরল নজির রোনালদোর

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৫ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার ১২:৪৮ পিএম

৭০০ গোল করে বিরল নজির রোনালদোর

ঢাকা : ইতিহাসের ষষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে ৭০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করার অনবদ্য কীর্তি গড়েছেন পর্তুগালের মহাতারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তার অর্জনের রাতে অবশ্য হেরে গেছে বর্তমান ইউরো চ্যাম্পিয়নরা। পর্তুগিজদের হারিয়ে ২০২০ উয়েফা ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের মূল পর্বে পা রেখেছে ইউক্রেন।

সোমবার রাতে বাছাই পর্বের ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে ইউক্রেনের মাঠে ২-১ গোলে হেরেছে ফার্নান্দো সান্তোসের শিষ্যরা। পর্তুগালের মাঠে দুদলের আগের লড়াইটি শেষ হয়েছিল গোলশূন্যভাবে।

আরইসি স্পোর্ট সকার স্ট্যাটিস্টিক্স ফাউন্ডেশনের তথ্য অনুসারে, ক্যারিয়ারে ৭০০ বা তার চেয়ে বেশি অফিসিয়াল গোল করার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন রোনালদোসহ মোট ছয়জন। তবে আগের পাঁচজনই গেল শতাব্দীতে মাইলফলক গড়েছিলেন।

অর্থাৎ একবিংশ শতাব্দীর প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ৭০০ গোল ছুঁয়েছেন রোনালদো। চেক-অস্ট্রিয়ান স্ট্রাইকার জোসেফ বিকান ৮০৫ গোল নিয়ে রয়েছেন তালিকার শীর্ষে। তার পরেই আছেন ব্রাজিলের সাবেক তারকা রোমারিও। তার গোল সংখ্যা ৭৭২টি। ৭৬৭ গোল নিয়ে এই তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছেন একই দেশের কিংবদন্তি ও তিনটি বিশ্বকাপ শিরোপাজয়ী পেলে।

হাঙ্গেরির ফেরেঙ্ক পুসকাস ৭৪৬ গোল নিয়ে চতুর্থ স্থান দখল করে আছেন। পাঁচ নম্বরে থাকা জার্মানির জার্ড মুলারের গোল সংখ্যা ৭৩৫টি। এই রথী-মহারথীদের তালিকায় নতুন করে সংযোজিত হয়েছে পাঁচ বারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার রোনালদোর নাম।

ক্লাব ও জাতীয় দল মিলিয়ে মোট ৯৭৩ ম্যাচ খেলে ৭০০ গোল করেছেন ৩৪ বছর বয়সী রোনালদো। এর মধ্যে ৪৫৮ ম্যাচেই কমপক্ষে একটি করে গোল করার অসাধারণ নজির রয়েছে তার।

ইউক্রেনের জালে বল পাঠিয়ে পর্তুগালের জার্সিতে নিজের গোল সংখ্যাকে ৯৫তে উন্নীত করেছেন তিনি, ব্যবধান কমিয়েছেন আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডধারী ইরানের আলী দাইয়ির সঙ্গে (১০৯ গোল)। প্রতিপক্ষের মাঠে ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটেই পিছিয়ে পড়ে পর্তুগাল। তাদের জালে লক্ষ্যভেদ করেন রোমান ইয়ারেমচুক। দলটির ম্যাচে ফেরার লড়াইটি আরও কঠিন হয়ে যায় ২৭তম মিনিটে।

আন্দ্রেই ইয়ারমোলেঙ্কো গোল করে ইউক্রেনকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন। ম্যাচের ৭২তম মিনিটে ব্যবধান কমায় পর্তুগাল। পেনাল্টি থেকে ঠিকানা খুঁজে নেন রোনালদো। জাতীয় দলের হয়ে শেষ চার ম্যাচেই টানা গোলের দেখা পেলেন তিনি।

এর আগে ডি-বক্সে টারাস স্টেপানেঙ্কোর হাতে বল লাগলে স্পট-কিকের বাঁশি বাজান রেফারি। সেই সঙ্গে দ্বিতীয় হলুদ দেখিয়ে মাঠছাড়া করেন স্টেপানেঙ্কোকে।

সোনালীনিউজ/আরআইবি/এমটিআই