শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬

ভারতে পাচার করে দেহব্যবসা

৮ বাংলাদেশি যুবতী উদ্ধার

নিউজ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার ১২:৫১ পিএম

৮ বাংলাদেশি যুবতী উদ্ধার

ঢাকা : ভারতে পাচার করে জোর করে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করানো ৮ বাংলাদেশি যুবতীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ অভিযানে আটক করা হয়েছে কমপক্ষে ২০ জনকে।

ভারতের জাতীয় অনুসন্ধানবিষয়ক ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ) বাংলাদেশ থেকে যৌন ব্যবসায় নিয়োজিত করার জন্য নারী পাচারবিরোধী অভিযান চালায় হায়দরাবাদের বিভিন্ন স্থানে।

দুদিনব্যাপী আম্বারপেত, মোগলপুরা ও বালাপুরের অভিযানে যৌথভাবে অংশ নেয় হায়দরাবাদের গোয়েন্দা এজেন্সি, হায়দরাবাদ ও রাচাকোন্দা পুলিশ কমিশনারেট।

অনলাইন বার্তা সংস্থা ডেকান ক্রনিকল জানিয়েছে, গোয়েন্দা এজেন্সিগুলোর তথ্যের ভিত্তিতে এসব অভিযান চালানো হয়।

তথ্য ছিল বাংলাদেশ থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সীমান্ত দিয়ে নারীদের পাচার করে ভারতে এনে জোর করে পতিতাবৃত্তি করানো হচ্ছে অথবা তাদেরকে দিয়ে গোপন পতিতালয় চালানো হচ্ছে। প্রাপ্ত তথ্যের ওপর ভিত্তি করে গত শনিবার অভিযান চালানো হয় মোগলপুরা এবং আম্বারপেত এলাকায়। সেখানে বিভিন্ন এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয় ৭ নারীকে। এ সময় আটক করা হয় ১৮ জনকে। আর রোববার অভিযান চালানো হয় বালাপুরে। সেখান থেকে বাকিদের উদ্ধার ও গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ দেখতে পেয়েছে ওইসব নারীকে অবৈধ উপায়ে ভারতে নেওয়া হয়েছে। দালালরা বাসা ভাড়া নিয়ে তাতে ওইসব নারীকে দিয়ে দেহব্যবসা করাত। পুলিশ বিষয়টিতে নিশ্চিত হয়েছে। হায়দরাবাদ পুলিশের সিনিয়র একজন কর্মকর্তা বলেছেন, উদ্ধার অভিযান সম্পর্কিত আলাদা তিনটি মামলা করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া নারীরা সবাই বাংলাদেশি।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue