• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই, ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯

‘মহিলা হয়ে বেঁচে গেলেন, অন্য কেউ হলে দেখে নিতাম’


নিউজ ডেস্ক ডিসেম্বর ১৯, ২০২১, ০৩:৩৭ পিএম
‘মহিলা হয়ে বেঁচে গেলেন, অন্য কেউ হলে দেখে নিতাম’

ফেনী: মহিলা (নারী) কর্মকর্তা হয়ে বেঁচে গেলেন, অন্য কেউ হলে দেখে নিতাম’। এমন ভাষায় উপজেলার এক নারী কর্মকর্তাকে হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

তবে অভিযুক্ত ফেনীর পরশুরাম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন মজুমদার অভিযোগের বিষয়টি গণমাধ্যমে অস্বীকার করেন।

সম্প্রতি নারী কর্মকর্তাকে হুমকি দেওয়ার একটি অডিও ভাইরাল হয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান  কামাল উদ্দিন মজুমদার ওই অডিওতে কণ্ঠ তার না বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, ‘এই কণ্ঠ আমার না, প্রতিপক্ষ এমন কাজ করেছে। ’ 

ভাইরাল হওয়া অডিও রেকর্ডে শোনা যায় পরশুরাম উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা নাসরিনকে হুমকি দিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল মজুমদার বলেন, ‘আপনি পরশুরাম এসে নতুন আইন তৈরি করছেন?’ উত্তরে ওই শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, ‘স্যার আমি কোনো আইন তৈরি করিনি। ’

এরপর চেয়ারম্যান ক্ষেপে গিয়ে বলেন, ‘তাহলে কাজটি কার...? আপনি কি করেন সব আমার জানা আছে। আপনি একজন মহিলা (নারী) কর্মকর্তা বলে বেঁচে গেলেন। কিন্তু অন্য কেউ হলে দেখে নিতাম। আমি ৩০ বছর চেয়ারম্যানি করতেছি। আপনি আমাকে প্রশাসনিক কাজ শিখান...?

তিনি হুমকি দিয়ে আরও বলেন, ‘এখানে চাকরি করতে হলে আগামীতে হিসাব-নিকাশ করে কাজ করবেন, না হয় অনেক কঠিন কিছুর শিকার হতে হবে।’

অভিযোগের বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার বলেন, ‘ভয়েস পরিবর্তন করে পরিকল্পিতভাবে এসব করা হয়েছে। উপজেলার কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আমার কোনো অভিযোগ নেই।’ 

জানা গেছে, শিক্ষা খাতের বিভিন্ন সরকারি বরাদ্দ চেয়ারম্যানকে না জানিয়ে অনলাইনে ব্যাংকের মাধ্যমে বণ্টন করায় চেয়ারম্যান এমন হুমকি দেন।

ভুক্তভোগী নারী কর্মকর্তা ফাতেমা নাসরীন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি একজন নারী বিষয়টি নিয়ে কথা বললে নিজের ক্ষতি হবে। অর্থ সংক্রান্ত কোনো ধরনের অনিয়ম হলে তিনি মাঠপর্যায়ে গিয়ে তদারকি করে দেখতে পারেন।’

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System