• ঢাকা
  • বুধবার, ২৯ জুন, ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯

রৌমারী সীমান্তে বাংলাদেশিকে হত্যার পর লাশ নিয়ে গেছে বিএসএফ


নিজস্ব প্রতিবেদক ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২২, ০৭:৫১ পিএম
রৌমারী সীমান্তে বাংলাদেশিকে হত্যার পর লাশ নিয়ে গেছে বিএসএফ

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের রৌমারী সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে ফরিদুল ইসলাম (২২) নামের এক গরু ব্যবসায়ী যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের হরিণধরা পুর্ব কাউয়ারচর সীমান্তে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ফরিদুল ঐ ইউনিয়নের হরিণধরা গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে।

জানা যায়, ফরিদুলসহ একদল গরু ব্যবসায়ী আন্তর্জাতিক সীমানা ১০৫৭ মেইন পিলারের পাশ দিয়ে অবৈধভাবে কাঁটাতারের বেড়ার ওপর দিয়ে ভারতীয় গরু পাচার করে আনছিল। এ সময় ভারতের কুকুরমারা ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাদেরকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে ফরিদুল গুলিবিদ্ধ হয়ে ভারতের অভ্যন্তরে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে মৃত্যু হয়। পরে ভারতীয় বিএসএফ সদস্যরা তার মরদেহ ভারতের অভ্যন্তরে নিয়ে যায়।

নিহতের দুলাভাই শহিদ মওলা জানান, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কাছে মরদেহ হস্তান্তরের দাবি জানিয়েছি।

রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান রেজাউল করিম সাংবাদিকদের জানান, ফরিদুলের মরদেহ হস্তান্তরের বিষয়ে দাঁতভাঙ্গা বিজিবি ক্যাম্পে জানানো হয়েছে।

রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, সীমান্তে ফরিদুল নামের একজনের মৃত্যুর সংবাদ শুনেছি। তদন্তের জন্য ওই এলাকায় পুলিশের একটি টিম পাঠানো হয়েছে।

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System