• ঢাকা
  • শনিবার, ২৫ জুন, ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯
কুমিল্লা সিটিতে ভোট বেড়েছে ২২ হাজার

নতুন ভোটারদের আকৃষ্ট করতে চান প্রার্থীরা


কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি মে ২৫, ২০২২, ০৩:৩৫ পিএম
নতুন ভোটারদের আকৃষ্ট করতে চান প্রার্থীরা

কুমিল্লা : কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনে গত নির্বাচনের তুলনায় এবার ভোট বেড়েছে ২২ হাজারেরও বেশি। নির্বাচনী বিশ্লেষণে দেখা গেছে, জয়ের পার্থক্য গড়ে দিতে পারে নতুন ভোটারদের এই সংখ্যা। তাই তরুণ এই ভোটারদেট প্রতি বিশেষ নজর রেখেছে প্রার্থীরাও। হেভিওয়েট প্রার্থীরাও নতুন ভোটারদের আকৃষ্ট করতে মনযোগ দিচ্ছেন বিশেষ ভাবে।

জানা যায়, গত নির্বাচনে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনে ভোটর ছিল ২ লাখ ৭ হাজার ৫৬৬ জন। আর এবার ভোট সংখ্যা ২ লাখ ২৯ হাজার ৯২০ জন। গতবারের তুলনায় এ নির্বাচনে ভোট বেড়েছে ২২ হাজার ৩৫৪ জন। নতুন ভোটারদের এই বিশাল সংখ্যা জয় পরাজয় নির্ধারণে মূখ্য ভূমিকা রাখবে। কারণ গত নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থীর চেয়ে তার নিকটতম প্রার্থীর ভোটের ব্যবধান ছিলো মাত্র ১১ হাজার। তবে তরুণ প্রজন্মের নতুণ ভোটাররা বলছে, রাজনীতি বা দল মূখ্য নয়- আসল সেবককেই তারা ভোট দিতে চান।

কুমিল্লা সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী তামান্না ইসরাত বলেন, এবার প্রথমবারের মত ভোট দেব। আমরা কোনো রাজনৈতিক করি না বুঝি না। নগরীর উন্নয়ন ও নগরবাসীর সেবা যে করবে তাকেই ভোট দেব।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের শিক্ষার্থী তারিফ হায়দার বলেন, বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে নগরীকে আধুনিকায় ডিজিটালাইজ করবে, তথ্য প্রযুক্তিতে এগিয়ে নিবে তাকেই আমরা বাঁছাই করবো মেয়র হিসেবে।

মেহেদী হাসান নামে আরেক শিক্ষার্থী জানান, মাদকমুক্ত, সন্ত্রাস মুক্ত আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর ও খেলাধূলায় তরুন প্রজন্মেকে যে এগিয়ে নিবে তাকেই ভোট দিব।

আ’লীগ প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার সবসময় তরুণদের গুরুত্ব দেয়। তারুণ্য অগ্রধিকার দিয়ে দেশকে ডিজিটালাইজ করছেন। শিক্ষা ব্যবস্থায় যুগান্তকারী পরিবর্তনসহ তরুন প্রজন্মের জন্য কাজ করছে সরকার। এ প্রজন্মের যারা নতুন ভোটার, তারা শেখ হাসিনাকে ভোট দিবে। শেখ হাসিনাকে ভোট দেওয়া মানে নৌকাকে ভোট দেওয়া। যেখানে নৌকা সেখানে ভোট শেখ হাসিনা সফল হউক।

স্বতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু বলেন, আমি মেয়র থাকাকালীন সময়ে সব পেশাশ্রেনীর মানুষের জন্য কাজ করেছি। তরুনদের জন্য কান্দিরপাড় নিউমাকের্টে আইসিটি পার্ক, বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্র, পাঠাগার, আর্ট স্কুলসহ বিভিন্ন কাজ করেছি। তরুনদের যুগোপযোগি বিভিন্ন প্রকল্প অনুমোদন করা হয়েছে। ভবিষ্যতেই তাদের নিয়ে আমার নানা পরিকল্পনা রয়েছে। তরুন ভোটাররাই আমার শক্তি।

স্বতন্ত্র নিজাম উদ্দিন কায়সার বলেন, এবারের কুসিক নির্বাচনের ১০ শতাংশ তরুন ভোটার। আমি এই নতুন প্রজন্মের একজন প্রতিনিধি হিসেবে আমি নতুন কুমিল্লা তৈরী করতে চাই। যে কুমিল্লার সাথে আধুনিকতা ও প্রযুক্তির একটা সমন্বয় থাকবে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুদ পারভেজ খান ইমরান বলেন, আমি শতভাগ আশাবাদী এবার যারা ভোটার হয়েছেন যারা তরুন ভোটার তারা আমাকে ভোট দিবেন। বিগত ১০ বছরে নগরীকে একটি ময়লা আর্বজনার স্তুপে পরিণত করা হয়েছে। তরুন ভোটাররা অনেক সচেতন তারা কোন প্রতিক না দেখে ব্যাক্তিকে ভোট দিবেন।

কুসিক নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরী বলেন, এবারের নির্বাচনে মোট ভোটার ২ লাখ ২৯ হাজার ৯২০জন। এর মধ্যে নতুন ভোটার হয়েছেন প্রায় ২২ হাজারের মত। প্রথম ভোট দেওয়ার আনন্দই আলাদা। তরুন প্রজন্মের এই নতুন ভোটারদের কেন্দ্রে এসে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন এ প্রত্যাশা করি।

উল্লেখ আগামী ২৭ মে কুমিল্লা সিটি নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ করা হবে। এরপর শুরু হবে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা। ১৫ জুন ভোট গ্রহন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System