• ঢাকা
  • শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭
Sonalinews.com

আস্থা ফিরছে শেয়ারবাজারে, সূচক ছাড়িয়ে ৫ হাজার পয়েন্ট


নিজস্ব প্রতিবেদক সেপ্টেম্বর ১০, ২০২০, ০৫:০৮ পিএম
আস্থা ফিরছে শেয়ারবাজারে, সূচক ছাড়িয়ে ৫ হাজার পয়েন্ট

ঢাকা : শেয়ারবাজারবিমুখ হয়ে পড়া সাইডলাইনে থাকা বিনিয়োগকারীরা আবার ফিরে আসতে শুরু করেছেন। পাশাপাশি সক্রিয় হয়ে উঠছেন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা। এতে ধারাবাহিকভাবে বাজারের সূচক ও লেনদেন বাড়ছে।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নতুন নেতৃত্ব দায়িত্ব নেয়ার পরেই পুঁজিবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা পরিলক্ষিত হচ্ছে।

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫ হাজার পয়েন্ট ছাড়িয়েছে। দীর্ঘ সাড়ে ১১ মাস পর সূচকটি ৫ হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করেছে।

দিনশেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৯.৬০ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ১১.২৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। সূচকটি দীর্ঘ ১১ মাস ১৬ দিন বা ১৯৫ কার্যদিবস পর ৫ হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করেছে। আর আগে ডিএসইর এই সূচকটি ২০১৯ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর আজকের চেয়ে বেশি অর্থাৎ ৫ হাজার পয়েন্টে অবস্থান করছিল।

ডিএসইতে বৃহস্পতিবার টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২৪ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। যা আগের দিন থেকে ৫৩ কোটি ৪৩ লাখ টাকা কম। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৭৭ কোটি ৯৭ লাখ টাকার।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৯৪.৪১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ২৮৯.২৬ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৭৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৫৪টির, কমেছে ৭৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টির দর। আজ সিএসইতে ২৯ কোটি ২২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির নতুন নেতৃত্ব দায়িত্ব নেয়ার পর বাজার ও বিনিয়োগবান্ধব বেশকিছু উদ্যোগ নেন। এতে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থা ফিরে আসতে শুরু করে। তাছাড়া করোনাভীতি কাটিয়ে ধীরে ধীরে অর্থনীতি স্বাভাবিক অবস্থার দিকে যাচ্ছে। এতে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থাও ফিরে আসছে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শেয়ারবাজার উন্নয়ন ইস্যুতে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সরকারের বিভিন্ন সংস্থা ও নীতিনির্ধারকদের সাথে নতুন কমিশনের বৈঠক ও সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ, সিকিউরিটিজ আইনের পরিপালনে কঠোর অবস্থান, আইনলংঘনকারী কোম্পানি ও ব্রোকারহাউজের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ, সন্দেজনক আইপিও আবেদন বাতিল করা, নতুন প্রোডাক্ট চালুর উদ্যোগ, বাজারে স্বচ্ছতা বাড়াতে রিপোর্টিংকে গুরুত্ব দেওয়া এবং ডিজিটাল মাধ্যমে সহজে রিপোর্ট জমা দেওয়ার ব্যবস্থা।

এসব উদ্যোগের ফলে কমিশন ও বাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীসহ স্টেকহোল্ডারদের আস্থা বেড়েছে।

অন্যদিকে বিএসইসির উদ্যোগের পর বাংলাদেশ ব্যাংকের নেওয়া বিভিন্ন ব্যবস্থায় বাজারে তারল্য বেড়েছে। আর এসব বিষয়ের ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে বাজারে।

সোনালীনিউজ/এলএ

Side banner