• ঢাকা
  • শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭
Sonalinews.com

দুই কোম্পানির ৬০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন


নিজস্ব প্রতিবেদক সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০, ০৬:৫১ পিএম দুই কোম্পানির ৬০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন

ঢাকা: শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত দুই কোম্পানির ৬০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

ব্যাংক খাতের ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ৫০০ কোটি টাকার নন-কনভারটিবল সাব-অর্ডিনেট বন্ড ও আমরা নেটওয়ার্কসের ১০০ কোটি টাকার ফুল্লি রিডেম্বল নন-কনর্ভাটেবল জিরো কুপন বন্ড।
বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) কমিশনের ৭৪১তম নিয়মিত সভায় এই অনুমোদন দেওয়া হয়।

জানা গেছে, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের বন্ডটির মেয়াদ হবে ৭ বছর। এর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে- নন-কনভারটিবল, পূর্ণ অবসায়ন, ফ্লোটিং রেট এবং অতালিকাভুক্ত সাবর্ডিনেট বন্ড। বন্ডটি সাত বছরে পূর্ণ অবসায়ন হবে।

এই বন্ড বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি, কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান এবং উচ্চ সম্পদশালী বিনিয়োগকারীরা প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ক্রয় করতে পারবেন। বন্ডটির অভিহিত মূল্য ১ লাখ টাকা।

বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে অর্থ উত্তোলন করে ডাচ বাংলা ব্যাংক টায়ার-২ ক্যাপিটাল বেসকে শক্তিশালী করবে। এই বন্ডের ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করছে গ্রীণ ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স। আর ম্যানডেটেড লিড এ্যারেঞ্জার হিসেবে রয়েছে স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাংক।

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত আমরা নেটওয়ার্কসের ১০০ কোটি টাকার বন্ডটির বৈশিষ্ট্য হচ্ছে নন-কনর্ভাটেবল, ফুল্লি রিডেম্বল, আনসিকিউরড, আনলিস্টেড, জিরো কুপন বন্ড। যার হার ৮.৬৮% থেকে ৯.৭৩% পর্যন্ত। বন্ডটি বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী, ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহ এবং অন্যান্য যোগ্য বিনিয়োগকারীদেরকে প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ইস্যু করবে।

উল্লেখ্য, এই বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ উত্তোলন করে আমরা নেটওয়ার্কস ইমপ্লিমেন্টেশন অব এ নিউ প্রজেক্ট, লোন রিপ্লেসমেন্ট এবং ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল রিকোয়ারমেন্ট কাজে ব্যবহার করবে।

এই বন্ডের প্রতি ইউনিটের অভিহিত মূল্য ১ লাখ টাকা। এই বন্ডের ট্রাস্টি এবং লিড অ্যারেঞ্জার হিসেবে যথাক্রমে প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট এবং লংকা বাংলা ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড কাজ করছে।

সোনালীনিউজ/এলএ/টিআই

Side banner