• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

ব্যাংকে টাকার সমস্যা নেই, গুজবে কান দেবেন না


নিজস্ব প্রতিবেদক নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০৪:০২ পিএম
ব্যাংকে টাকার সমস্যা নেই, গুজবে কান দেবেন না

যশোর: ব্যাংকে টাকার কোনো সমস্যা নেই বলে জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, অনেকে রির্জাভ নিয়ে কথা বলেন। কিন্তু দেশে রির্জাভের কোনো সংকট নেই। অনেকে আবার বলেন, ব্যাংকে টাকা নেই। ব্যাংকে টাকা নেই কথাটাও মিথ্যা। প্রতিটি ব্যাংকে যথেষ্ট টাকা রয়েছে।কেউ কেউ ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বাড়িতে রাখছেন। বাড়িতে রাখলে তো চুরি হয়ে যাবে। ব্যাংকে টাকার কোনো সমস্য নেই। গুজবে কান দেবেন না। দেশের অর্থনীতি স্থীতিশীল আছে। 

তিনি বলেন, গতকালও আমি বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনরসহ তাদের সাথে মিটিং করেছি। আমাদের এ বিষয়ে কোনো সমস্যা নাই। প্রত্যেকটা ব্যাংকে যথেষ্ট টাকা আছে।

আওয়ামী লীগ প্রধান আরও বলেন, আমাদের রেমিট্যান্স আসছে, বিদেশ থেকে বিনিয়োগ আসছে। আমদানি-রপ্তানি আয়, ট্যাক্স কালেকশন বৃদ্ধি পেয়েছে। 

তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বিশ্বের অনেক দেশ হিমশিম খেলেও বাংলাদেশের অর্থনীতি এখনও অনেক শক্তিশালী।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) বিকেল যশোর জনসভায় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় আগামীতে আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে আবারও ক্ষমতায় আনার জন্য যশোরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে মানুষের সেবা করার সুযোগ দেওয়ায় আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। আবারও আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে সেবা করার সুযোগ দেবেন কিনা ওয়াদা করেন, এসময় কানায় কানায় পূর্ণ যশোরের শামস-উল হুদা স্টেডিয়ামের উপস্থিত লাখো নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একাত্বতা প্রকাশ করেন।    

তিনি আরও বলেন, এই বাংলাদেশ এসময় ছিল ভিক্ষুকের বাংলাদেশ। সেখান থেকে টেনে তুলে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপ দিয়েছে আওয়ামী লীগ। আজকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নত করেছি। বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশ। দেশের মানুষের অধিকার রক্ষার লক্ষ্য নিয়েই আওয়ামী লীগ কাজ করে যাচ্ছে।বিএনপি রক্ত আর হত্যা ছাড়া দেশের মানুষকে কিছুই দিতে পারেনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণ শুনতে যশোরের শামস-উল হুদা স্টেডিয়াম কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে উৎসবের শহরে পরিণত হয়েছে যশোর।

সভামঞ্চের সামনে জায়গা পেতে সকাল ৯টা থেকেই যশোর জেলার আট উপজেলাসহ আশপাশে পাশের বিভিন্ন উপজেলা থেকে নেতাকর্মীরা এসেছেন। অনেকে ব্যাগে করে দুপুরের খাবারও নিয়ে এসেছেন। এছাড়া স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতাদের ছবি সম্বলিত গেঞ্জি পরে কর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে জনসভায় হাজির হন। নেতাকর্মীরা হাতে শেখ হাসিনা ও শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ডও বহন করছেন।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন ঘিরে আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসবের আমেজের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মধ্যেও নতুন আশার সঞ্চার হয়েছে। যশোরের উন্নয়নে একগুচ্ছ দাবি দাওয়া রয়েছে এখানকার বাসিন্দাদের।

যশোরের নাগরিক সমাজ এরইমধ্যে যশোর মেডিকেল কলেজে ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল, মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের নামে সাগরদাঁড়িতে সংস্কৃতি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন, ভবদহের জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধান, যশোর বিমানবন্দর আন্তর্জাতিকমানে উন্নীতকরণ ও সিটি করপোরেশনের দাবি নিয়ে মানববন্ধন ও সভা-সমাবেশ করে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন।

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School