• ঢাকা
  • রবিবার, ২৯ মে, ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সহকারী শিক্ষকদের বেতন ভাতা ও ইনক্রিমেন্ট


নিউজ ডেস্ক জানুয়ারি ১৬, ২০২২, ১২:১৮ পিএম
সহকারী শিক্ষকদের বেতন ভাতা ও ইনক্রিমেন্ট

ঢাকা : ১৯৯১ সালের নিয়ােগবিধি অনুযায়ী সরকারি হাই স্কুলের সহকারি শিক্ষক/শিক্ষিকা নিয়ােগের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যােগ্যতা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রিসহ দ্বিতীয় শ্রেণি প্রশিক্ষণ অথবা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ২য় শ্রেণি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি (৫ বৎসরের মধ্যে প্রশিক্ষণ গ্রহণের শর্তে) রাখা হয়েছে সেহেতু ১ম যােগদানের তারিখ হতে প্রশিক্ষণবিহীন সহকারী শিক্ষক/শিক্ষিকাগণ ২৩০০-৪৪৮০/- টাকার স্কেল প্রাপ্য হবেন।

প্রশিক্ষণবিহীন সহকারী শিক্ষক/শিক্ষিকাগণ ৫ বৎসরের মধ্যে প্রশিক্ষণ গ্রহণে ব্যর্থ হলে তাঁরা ৫ বৎসরের পর বার্ষিক বর্ধিত বেতনের সুবিধা প্রাপ্য হবেন না।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদশ সরকার
হিসাব মহা নিয়ন্ত্রক এর কার্যালয়
সচিবালয় ভবন, ৩য় ফেজ সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০।
স্মারক নং- সিজিএ/পদ্ধতি-১/উঃ নিঃ/শিক্ষা/২৮৩/ তারিখঃ ০৬/২০১১ খ্রিঃ

বরাবর,
ডিভিশনাল কন্ট্রোলার অব একউন্টস, চট্রগ্রাম বিভাগ, প্রবর্তক মােড়, চট্টগ্রাম।

বিষয়:- সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় সমূহে নিয়ােগ প্রাপ্ত প্রশিক্ষণবিহীন ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষক/শিক্ষিকাদের নিয়ােগকালে শিক্ষাগত যােগ্যতার জন্য অগ্রিম ইনক্রিমেন্ট প্রদান ও বেতন স্কেল প্রদান প্রসঙ্গে।

সূত্র ১। নং ডিসিএ/চট্ট/২৫৬ তারিখ – ২০/০১/২০০৩ খ্রিঃ |
২ নং সিজিএ/পদ্ধতি (উঃ নিঃ)/২২৩/১৫২ তারিখ: ২৬/০৫/০৩ খ্রিঃ |
৩। নং সিজিএ/পদ্ধতি (উঃ নিঃ) ২৮৩/৩৮২ তারিখ:- ০৯/০৯/২০০৩ খ্রিঃ
৪। নং সিজিএ/পদ্ধতি (উঃ নিঃ) ২৮৩/৪০২ তারিখ:- ৩০/০৯/২০০৩ খ্রিঃ
৫। নং ডিসিএ/চট্রগ্রাম/8/বেতন নির্ধারন/৫৩/২২১৬ তারিখ:- ০৯/১২/০৭ খ্রিঃ
৬। নং সিজিএ/পদ্ধতি-১/উঃ নিঃ/২৮৩/২১৪ তারিখ:- ১২/০২/২০০৮ খ্রিঃ
৭। নং ডিসিএ/চট্ট/বিধি ও পদ্ধতি/নােয়া/খন্ড-৩/80/৩৮০১ তারিখ:- ২৩/১২/২০১০ খ্রিঃ
৮। নং সিজিএ/পদ্ধতি-১/২২৩(খন্ড-১)(ক)/৭৩৪ তারিখঃ- ১৬/০৫/২০১১ খ্রিঃ

উপযুক্ত বিষয়ে সূত্রস্থ পত্র সমূহের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা যাচ্ছে।
০২। বর্ণিত বিষয়ে ১ নং সূত্রস্থ পত্রের মাধ্যমে নিম্ন বর্ণিত ৪টি বিষয়ে মতামত সহ সিদ্ধান্ত চাওয়া হয়ঃ
(১) প্রশিক্ষণবিহীন এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকগণ উভয়ই ২৩০০-৪৪৮০/- স্কেল পাবেন কিনা?
(২) নিয়ােগবিধি শর্ত অনুযায়ী ৫ বৎসরের মধ্যে বিএড ২য় শ্রেণি অর্জন না করলে চাকরি বা স্কেলের অবস্থা কি হবে?
(৩) প্রশিক্ষণবিহীন সহকারী শিক্ষকগণ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করলে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হওয়ার পর কোন তারিখ হতে অগ্রিম ইনক্রিমেন্টের সুবিধা প্রাপ্ত হবেন।
(৪) প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকগণ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি থাকলে তার জন্য অগ্রিম ইনক্রিমেন্ট পাবেন কিনা?

০৩। ৩নং সূত্রস্থ পত্রের মাধ্যমে ১ ও ২ নং ক্রমিকের বর্ণিত চাহিদাকৃত সিদ্ধান্ত ব্যতীত ৩ ও ৪নং মতামতের সাথে একমত পোষণ করে সিদ্ধান্ত প্রদান করা হয় অর্থাৎ তৎকালিন পূর্ব পাকিস্তান সরকারের শিক্ষা বিভাগের ১৭/০৭/৭০ খ্রিঃ তারিখের স্মারক অনুযায়ী অগ্রিম ইনক্রিমেন্ট প্রদানের সুবিধা, প্রশিক্ষণসহ যােগ্যতা থাকলে সাধারণভাবে নিয়ােগকালীন সময়ই পাবে। প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকগণ অনুমতি ক্রমে যে তারিখে যােগ্যতা অর্জন করবে সেই তারিখ হতে অগ্রিম ইনক্রিমেন্টের সুবিধা প্রাপ্য হবে। উক্ত স্মারকে প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকদের স্নাতকোত্তর ডিগ্রির জন্য অগ্রিম ইনক্রিমেন্টের কোন বিধান না রাখায় প্রশিক্ষণবিহীন শিক্ষকগণ স্নাতকোত্তর ডিগ্রির জন্য নিয়ােগকালে অগ্রিম ইনক্রিমেন্ট প্রাপ্য নহে। এক্ষেত্রে তাঁরা যে তারিখে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করবেন সে তারিখ হতে অগ্রিম ইনক্রিমেন্টের সুবিধা প্রাপ্য হবেন। বাকী সিদ্ধান্ত গুলির বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পত্র লিখা হয়েছে (২নং সূত্রস্থ পত্রের মাধ্যমে) মর্মে জানানাে হয়েছিল (সংলগ্নী- ১ ও ২)। বর্ণিত বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় হতে জবাব না পাওয়ায় ৪নং সূত্রস্থ পত্রের মাধ্যমে তাগিদপত্র দেয়া হয় (সংলগ্নী-৩)।

৪। ৫নং ও ৭নং সূত্রস্থ পত্রের মাধ্যমে পুনরায় বর্ণিত বিষয়ে মতামত চাওয়া হলে আবারও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে ৬নং ও ৮নং প্রস্থ পত্রের মাধ্যমে (সংলগ্নী-৪ ও ৫) তাগিদ পত্র জারি করা হয় যা অদ্যাবধি পাওয়া যায়নি।

০৫। বর্ণিত অবস্থায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় হতে দীর্ঘ সময়েও উপরােক্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত না পাওয়া সাময়িকভাবে ১নং সূত্রস্থ পত্রের ক্রমিক নং ১ ও ২ এর বিষয়ে নিম্ন বর্ণিত সিদ্ধান্ত আদিষ্ট হয়ে প্রদান করা হলাে। তবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় হতে উক্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত পাওয়া গেলে পরবর্তী কার্যক্রম গৃহীত হবে।

(১) যেহেতু ১৯৯১ সালের নিয়ােগবিধি অনুযায়ী সরকারি হাই স্কুলের সহকারী শিক্ষক/শিক্ষিকা নিয়ােগের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যােগ্যতা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রিসহ দ্বিতীয় শ্রেণি প্রশিক্ষণ অথবা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ২য় শ্রেণি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি (৫ বৎসরের মধ্যে প্রশিক্ষণ গ্রহণের শর্তে) রাখা হয়েছে সেহেতু ১ম যােগদানের তারিখ হতে প্রশিক্ষণবিহীন সহকারী শিক্ষক/শিক্ষিকাগণ ২৩০০-৪৪৮০/- টাকার স্কেল প্রাপ্য হবেন।

(২) প্রশিক্ষণবিহীন সহকারী শিক্ষক/শিক্ষিকাগণ ৫ বৎসরের মধ্যে প্রশিক্ষন গ্রহণে ব্যর্থ হলে তাঁরা ৫ বৎসরের পর বার্ষিক বর্ধিত বেতনের সুবিধা প্রাপ্য হবেন না।

(পবিত্ৰেশ্বর রায়)
উপ হিসাব মহা নিয়ন্ত্রক (পদ্ধতি)
ফোন :- ৯৩৫৬৫০১।

সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষকদের ইনক্রিমেন্ট ও বেতন স্কেল প্রদান সংক্রান্ত

সোনালীনিউজ/এমটিআই

 

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System