• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯
ফেসবুক ‘রহস্যময়’ স্ট্যাটাস

মৌসুমীর অধঃপতনের কথাই কি বললেন অমিত হাসান?  


বিনোদন ডেস্ক  জুন ১৫, ২০২২, ০৭:৩৮ পিএম
মৌসুমীর অধঃপতনের কথাই কি বললেন অমিত হাসান?  

ঢাকা : নায়ক জায়েদ খানকে ঘিরে ওমর সানী-মৌসুমীর ২৭ বছরের সংসারে ফাটল ধরেছে। গত দেড় বছর ধরে এ দম্পতির সম্পর্কে দূরত্ব বেড়েছে, তা স্বীকার করেছেন সানী নিজেই।

অথচ বাইরের কেউ এতোদিন বিষয়টি ঘুণাক্ষরেও টের পায়নি।

ওমর সানী যখন জায়েদের বিরুদ্ধে মৌসুমীকে বিরক্ত করার অভিযোগ আনেন, তখন মৌসুমী অডিওবার্তা পাঠান, ‘জায়েদ খুব ভালো ছেলে’।

একদিকে জায়েদের বিরুদ্ধে শিল্পী সমিতিতে লিখিত অভিযোগ দিয়ে বিচার চাইছেন ওমর সানী। অন্যদিকে জায়েদের ভূয়সী প্রশংসা করে ওমর সানীর সব অভিযোগ মিথ্যায় ভাসিয়ে দিয়েছেন মৌসুমী।

মৌসুমীর সেই অডিওবার্তা নিয়ে শুরু হয় হইচই। কেউ ওমর সানীকে মিথ্যেবাদী বলছেন তো কেউ মৌসুমীকে বলছেন প্রতারক। এক অর্থে ঢাকাই ছবির দুই জনপ্রিয় তারকার ইমেজ শিকেয় উঠতে চলেছে।

সবমিলিয়ে জায়েদ খানকে ঘিরে একই ছাদের তলার দুই বাসিন্দা ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্যে চলচ্চিত্রের মানুষেরা যখন বিরক্ত ও বিব্রত, তখন ফেসবুকে রহস্যময় এক স্ট্যাটাস দিলেন আরেক জনপ্রিয় তারকা অমিত হাসান।

ওমর সানী ও মৌসুমীর সময়ে যিনি রূপালি পর্দায় নিজের অবস্থান তৈরি করে নিয়েছেন।

যদিও স্ট্যাটাসে সানী, মৌসুমী বা অন্যকারো নাম উল্লেখ করেননি অমিত। তবে তার স্ট্যাটাসের বক্তব্য যেন চলমান সেই ঘটনার দুই চরিত্রকেই ইঙ্গিত দিচ্ছে। 

গত ১৪ জুন অমিত হাসান নিজের ফেসবুক পেজে সেই স্ট্যাটাসটি দেন। পরে নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টের পোস্টটি শেয়ারও করেন।

অমিত লিখেছেন, ‘তাকিয়ে রইলাম একটি উজ্জ্বল নক্ষত্রের বিরতিহীন অধঃপতন দেখে। অস্পষ্ট কুয়াশায় ঢেকে গেল। কষ্টে গড়া সম্মান দুমড়েমুচড়ে পড়লো পদতলে।’

প্রশ্ন উঠেছে কার অধঃপতনের কথা বলেছেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় অভিনেতা? 

অমিত মুখ না খুললেও কমেন্টে অনেকেই নিজে থেকে ওমর সানী ও মৌসুমী প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন। 

অনেকে আবার মধ্যস্ততা করে ঝগড়া মিটিয়ে দিতে অনুরোধ করেছেন অমিতকে।

নেটিজেনরা লিখেছেন, সব ভুল বুঝাবুঝি মান-অভিমান সাইডে রেখে ঘনিষ্ঠ বন্ধুর (ওমর সানী) পাশে দাঁড়ান! কমপক্ষে সাহস যোগান কারণ বিপদের বন্ধুই প্রকৃত বন্ধু!

সে নিয়ে অবশ্য কিছুই বলেননি নারাজ এ ভার্সেটাইল অভিনেতা ।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System