• ঢাকা
  • সোমবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮
abc constructions

নিউজিল্যান্ডে ৮.১ মাত্রার ভয়াবহ ভূমিকম্প


আন্তর্জাতিক ডেস্ক মার্চ ৫, ২০২১, ০৯:৫৪ এএম
নিউজিল্যান্ডে ৮.১ মাত্রার ভয়াবহ ভূমিকম্প

ঢাকা: নিউজিল্যান্ডের উপকূলে স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে ৮ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী আরও একটি ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। তৃতীয় ভূমিকম্পের পর আবারও জারি করা হয়েছে সুনামি সতর্কতা। উপকূলীয় লোকজনকে উচু ও নিরাপদ স্থানে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলে জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল ৯টার আগে উত্তর-পূর্বের কেরমাডেক আইল্যান্ডে শক্তিশালী এই ভূমিকম্প আঘাত হানে। বিবিসি জানিয়েছে, শুক্রবার নিউজিল্যান্ডে তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানে সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে।

ভূমিকম্পের পর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ আবারও সুনামি সতর্কতা জারি করে দেশটির পূর্ব উপকূলে ‘অকল্পনীয় জলোচ্ছ্বাসের’ ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে বাসিন্দাদের। 

বিভিন্ন প্রতিবেদনের বরাতে বিবিসি জানিয়েছে, তৃতীয় দফায় সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর নিউজিল্যান্ডের বেশ কিছু শহরের মানুষের মধ্যে উঁচু স্থানে যাওয়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছে। দিগ্বিদিক হয়ে মানুষজন ছোটাছুটি করছেন। 

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা ২৭ মিনিটে প্রথম ৭ দশমিক ২ মাত্রার এবং ভোর ৬টা ৪১ মিনিট দ্বিতীয়বার ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল দেশটি। কর্তৃপক্ষ সমুদ্রতীরবর্তী কিছু এলাকার লোকজনকে দ্রুত উঁচু স্থানে আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে। 

প্রথম ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। পরে সুনামি সতর্কতা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

কিন্তু শুক্রবার সকালে আগের দুটির চেয়ে শক্তিশালী তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর কর্তৃপক্ষ আবারও সুনামি সতর্কতা জারি করতে বাধ্য হয়েছে।


নিউজিল্যান্ডের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা এনইএমএ নর্থল্যান্ড, ইস্ট কেপ ও গ্রেট ব্যারিয়ার দ্বীপের পাশাপাশি ওয়াংগেরেই দ্বীপপূঞ্জের মাতাটা থেকে তোলাগা উপসাগরীয় উপকূলের কাছাকাছি যারা আছেন তাদের অবশ্যই খুব দ্রুত উঁচু স্থানে কিংবা যতদূর সম্ভব অনেকটা দূরে চলে যাওয়ার নির্দেশ জারি করেছে। 

এনএএমএ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘শক্তিশালী ঢেউ এবং জলোচ্ছ্বাস মানুষকে আহত কিংবা ডুবিয়ে দিতে পারে। সাঁতারু, সার্ফার, মাছ ধরেন এমন লোকজন, ছোট নৌকা ও উপকূলে বা তার কাছাকাছি থাকা মানুষজন ঝুঁকির মুখে রয়েছে।’

নিউজিল্যান্ডের বেসামরিক প্রতিরক্ষা বিষয়ক মন্ত্রী কিরি অ্যালান বলেছেন, ‘পরিস্থিতি দ্রুত বদলে যাচ্ছে। যারা উঁচু ও নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিয়েছেন, সরকারিভাবে স্পষ্ট নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত তাদেরকে স্ব স্ব স্থানে থাকার আহ্বান জানাচ্ছি আমরা।’

যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াইভিত্তিক প্রশান্ত মহাসাগরীয় সুনামি সতর্কতা কেন্দ্র জানিয়েছে যে ‘সুনামির তরঙ্গ পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে’ তবে এখনও কোনও ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

সুনামির কারণে উপকূলে তিন মিটার অর্থাৎ ১০ ফুট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাস হতে পারে বলে সতর্ক করেছে নিউজিল্যান্ডের কর্তৃপক্ষ। এছাড়া পেরু, ইকুয়েডর এবং চিলিসহ দক্ষিণ আমেরিকার কিছু দেশের উপকূলেও এক মিটার উঁচু দিয়ে ঢেউ দেখা দেওয়ার ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে।

সোনালীনিউজ/এইচএন

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Wordbridge School