• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর, ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯

প্রেসিডেন্ট, সরকার দ্বন্দ্বে ফের টালমাটাল নেপাল


আন্তর্জাতিক ডেস্ক সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২২, ১২:৩৬ এএম
প্রেসিডেন্ট, সরকার দ্বন্দ্বে ফের টালমাটাল নেপাল

ঢাকা : বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে সরকারের সঙ্গে রাষ্ট্রপ্রধানের দ্বন্দ্বে ফের টালমাটাল হয়ে উঠেছে নেপাল।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভাণ্ডারি আইনটির প্রস্তাবিত সংশোধনীতে স্বাক্ষর করতে অস্বীকার করার পর তার বিরুদ্ধে দেশের সংবিধান লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে।    

আইনে যে সংশোধনীগুলো প্রস্তাব করা হয়েছে তার একটিতে যে সব শিশুদের বাবা-মায়ের হদিস জানা যায়নি তাদেরও নাগরিকত্ব দেওয়া কথা বলা হয়েছে। 

ওই সংশোধনী অনুযায়ী, নেপালি মায়ের গর্ভে জন্ম নেওয়া শিশু যার বাবার পরিচয় জানা যায়নি তার মা ঘোষণা সে বিষয়ে ঘোষণা দিলে ওই শিশুও নাগরিকত্বের নথি পাবে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ২০১৫ সালের সংবিধান অনুযায়ী আনুষ্ঠানিক রাষ্ট্রপ্রধান ভাণ্ডারির জন্য ১৬ বছরের পুরনো নেপালের নাগরিকত্ব আইনের এ সংশোধনীগুলো অনুমোদনের সময়সীমা মধ্যরাতে শেষ হয়ে যায়। ভাণ্ডারির সহযোগী ভেশ রাজ অধিকারী রয়টার্সকে বলেন, ‘সরকার ও পার্লামেন্ট তার উদ্বেগ আমলে না নেওয়ায় প্রেসিডেন্ট বিল অনুমোদন করেননি।’ 

আইন বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, পার্লামেন্টে দুইবার সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে পাস হওয়া এই সংশোধনী প্রেসিডেন্টের অনুমোদন করা আবশ্যক ছিল। নেপালের সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারক বলরাম কে. সি. বলেছেন, আনুষ্ঠানিক রাষ্ট্রপ্রধান এ সংশোধনী অনুমোদন না করে সংবিধানের গুরুতর লংঘন করেছেন। 

তিনি বলেন, ‘হয় প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার পদত্যাগ করা উচিত না হলে সুপ্রিম কোর্টে তার বিরুদ্ধে মামলা করা উচিত।’ নেপালের প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দেউবার সহযোগীরা জানিয়েছেন, উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য ক্ষমতাসীন জোটের শীর্ষ নেতারা গতকাল বুধবার বৈঠকে বসবেন।

আগামী ২০ নভেম্বর নেপালের পরবর্তী জাতীয় নির্বাচন। বুধবারের বৈঠকে আসন্ন নির্বাচনের রাজনৈতিক জোট নিয়েও আলোচনা হবে বলে জানিয়েছেন তারা। 

বিদ্যমান নাগরিকত্ব আইন অনুযায়ী, একজন নেপালি পুরুষকে বিয়ে করেছেন এমন একজন বিদেশি নারী তার বিয়ের এবং অন্য দেশের নাগরিকত্ব ত্যাগ করার প্রক্রিয়া শুরু করেছেন এমন প্রমাণপত্র দেখাতে পারলে নেপালের নাগরিকত্ব পেতে পারেন। নেপালের প্রধান বিরোধীদল কমিউনিস্ট পার্টির (সম্মিলিত মার্কসিস্ট-লেনিনিস্ট) জ্যেষ্ঠ নেতা সূর্য থাপা বলেছেন, ওই সংশোধনীতে অবশ্যই বিদেশি নারীদের নেপালের নাগরিকত্ব পাওয়ার আগে সাত বছর অপেক্ষা করার বিধান থাকা উচিত।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System