• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

খোলা চুলে বিক্ষোভে সেই টিকটকার পুলিশের গুলিতে নিহত


অনলাইন ডেস্ক  সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২, ০২:৫৬ পিএম
খোলা চুলে বিক্ষোভে সেই টিকটকার পুলিশের গুলিতে নিহত

ঢাকা: ইরানের নৈতিকতা পুলিশের হাতে আটক এবং নির্যাতনে ২২ বছর বয়সী মাহসা আমিনির মৃত্যুর প্রতিবাদে দেশটিতে চলমান বিক্ষোভের সামনের সারিতে ছিলেন জনপ্রিয় টিকটকার হাদিস নাজাফি।

২০ বছর বয়সী এই টিকটকারের খোলা চুলে বিক্ষোভের মাঝখানে যাওয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, গত রবিবার রাতে ইরানের কারাজ এলাকায় তরুণীর বুকে, মুখে, হাতে এবং গলায় গুলি করা হয়। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন তিনি। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে ওই তরুণীকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।  

এর আগেও হিজাববিরোধী আন্দোলনে দেখা গেছে হাদিস নাজাফিকে। এবারের আন্দোলনে ইরানের নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয়েছে মোট ৭৬ জনের। গ্রেপ্তার হয়েছেন সহস্রাধিক।

আমিনির মৃত্যুর পরই ইরানজুড়ে হিজাব নিয়ে শুরু হয় বিক্ষোভ। বাধ্যতামূলকভাবে হিজাব পরার আইন বাতিলের দাবিতে প্রতিবাদীরা তেহেরানের রাস্তায় জড়ো হন। 

সেখানে তারা চিৎকার করে ‘হিজাব নয়, স্বাধীনতা ও সাম্য চাই’ স্লোগান দেন। পাশাপাশি, অনেক ইরানি নারী চুল কেটে ফেলেও সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান।

এর মধ্যে ফের নতুন বিতর্কে জড়িয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। নিউইয়র্কে সিএনএনের সাংবাদিক ক্রিস্টিন এমনপোরকে সাক্ষাৎকার দেওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু ওই সাংবাদিক হিজাব পরতে অস্বীকার করায় সাক্ষাৎকার বাতিল করেন ইরানের প্রেসিডেন্ট। 

হিজাব না পরা নারীদের চিহ্নিত করতে এবার ‘ফেসিয়াল রেকগনিশন’ প্রযুক্তি ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইরান সরকার। 

সোনালীনিউজ/এম

Wordbridge School