• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭
Sonalinews.com

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে করা রিট খারিজ


নিজস্ব প্রতিবেদক সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০, ০৬:৪২ পিএম চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে করা রিট খারিজ

চাঁদপুর: চাঁদপুর পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে করা রিট আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আদালত। রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) শুনানি শেষে আদালত এ রায় দেন। এর ফলে নির্বাচন কমিশন নির্ধারিত সময়ে এ পৌরসভায় নির্বাচন আয়োজনে আর বাধা রইলো না। এর আগে গত ১৩ সেপ্টেম্বর রবিবার হাইকোর্টে বিচারপতি জেবিএম হাসানের কোর্টে এই রিট পিটিশন করেন পৌরসভার দুইজন নাগরিক।

রিট খারিজের তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েল। তিনি জানান, উচ্চ আদালতের যে বেঞ্চ রিট করা হয়েছিল ওই একই বেঞ্চ রিট খারিজ করে দিয়েছেন।

রিটকারী দুইজন হচ্ছেন পৌরসভার বর্তমান মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদের ভাগনে মাহবুব আলম আখন্দ এবং মেয়রের ব্যক্তিগত কর্মকর্তার ভাই মো. হাসিবুল হাসান।

রিটকারী হাসিবুল হাসানসহ আরও কয়েকজন নির্বাচন কমিশন বরাবরেও আবেদন করেন। ওই আবেদনে উল্লেখ করা হয়, বর্তমানে করোনাভাইরাসে চাঁদপুর পৌরসভায় প্রায় ১০০-র মতো লোক মারা গেছে এবং বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রায় ৮-৯শ’ লোক আক্রান্ত। এলাকার জনগণ ভীত। এ কারণে ভোটকেন্দ্রে যাওয়া সম্ভব নয়।

তবে স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, পৌরসভাসহ চাঁদপুর সদর উপজেলায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৮৮২ জন, সুস্থ হয়েছে সাত শতাধিক। অর্থাৎ পৌরসভা নয় পুরো উপজেলায় এ মুহূর্তে আক্রান্তের সংখ্যা দেড় শতাধিক।

এ তথ্য বিশ্লেষণ করে নির্বাচনে যারা অংশ নিতে চান তাদের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, নির্বাচন কমিশনে ভুল তথ্য দিয়ে নির্বাচনের সময়কে প্রলম্বিত করার চেষ্টা করছেন বর্তমান মেয়র ও তার স্বজনরা। তবে তারা আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিক্রিয়া ব্যক্তি করেননি বলে নাম প্রকাশ করতে চাননি।

উল্লেখ্য, গত ৩ সেপ্টেম্বর চাঁদপুর পৌর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। ১৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই। ২৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং ১০ অক্টোবর শনিবার ভোটগ্রহণ। এ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী সাবেক ছাত্রদল নেতা আক্তার হোসেন মাঝি।

সোনালীনিউজ/টিআই

Side banner