• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭

ডিসেম্বরের মধ্যেই পূর্বাচলের আদি অধিবাসীরা পাবেন প্লট


নিজস্ব প্রতিনিধি নভেম্বর ৩০, ২০২০, ০৪:৩৭ পিএম
ডিসেম্বরের মধ্যেই পূর্বাচলের আদি অধিবাসীরা পাবেন প্লট

ঢাকা: গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি বলেছেন আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্প এলাকার আদি অধিবাসী ও ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে প্লট বরাদ্দ প্রদান করা হবে।

সোমবার (৩০ নভেম্বর) সচিবালয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে পূর্বাচল আবাসিক প্রকল্পে আদি অধিবাসীদের জন্য প্লট বরাদ্দ বিষয়ক এক সভায় তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রকল্প এলাকায় যারা স্থায়ী বাসিন্দা ছিল এবং যারা ক্ষতিগ্রস্ত তাদের জন্য প্লট বরাদ্দ প্রদান করা হবে।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং রাজউকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্মচারী সমন্বয়ে দ্রুততম সময়ের মধ্যে যাচাই বাছাই প্রক্রিয়া সমাপ্ত করার জন্য তিনি নির্দেশনা প্রদান করেন।

যে সকল প্লট মালিকানা পরিবর্তন বা অন্য কোন কারণে খালি হয়েছে সে গুলির তালিকা প্রস্তুত করতে তিনি নির্দেশনা প্রদান করেন। অনেক ক্ষেত্রে দেখা গেছে কেউ একটি প্লট বরাদ্দ পাওয়ার পর অন্য কোন প্লটের জন্য আবেদন করেছেন। পরবর্তীতে তার নামে আরেকটি প্লট বরাদ্দ প্রদান করা হলেও পূর্বের বরাদ্দ বাতিল করা হয়নি। এ ধরনের তথ্য হালনাগাদ পূর্বক খালি থাকা প্লটের একটি ডাটাবেজ প্রস্তুতির জন্য তিনি পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পের পরিচালক এবং রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে নির্দেশনা প্রদান করেন। তাছাড়া বাণিজ্যিক প্লট বরাদ্দ প্রদান সংক্রান্ত বিষয়ে হাইকোর্টে চলমান মামলার ব্যাপারে অ্যাটর্নি জেনারেলের সাথে সাক্ষাৎ পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সভায় তিনি প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে এদেশের সাধারণ মানুষের নিকট আমার ব্যক্তিগত দায়বদ্ধতা রয়েছে। একই সাথে একজন জনপ্রতিনিধি ও সরকারের প্রতিমন্ত্রী হিসেবেও জনসাধারণের নিকট আমার দায়বদ্ধতা রয়েছে। উপরন্তু পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্প এলাকায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য প্লট বরাদ্দ প্রদান করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের স্বার্থে এ কাজে কারো বিন্দুমাত্র শৈথিল্য বা গাফিলতি সহ্য করা হবে না।

রাজউকের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা জনগনের সেবক, প্রকৃত সেবার মনোভাব নিয়ে মানুষের জন্য কাজ করবেন। মানুষকে হয়রানিমুক্ত ও আন্তরিকতাপূর্ণ সেবার মাধ্যমে সন্তুষ্ট করার চেষ্টা করবেন। দায়িত্ব পালনে শৈথিল্য কিংবা ঔদাসীন্য প্রদর্শন থেকে বিরত থাকবেন। একই সাথে সততা নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করবেন।

অনুষ্ঠানে গাজীপুর -৫ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য মেহের আফরোজ এমপি, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গাজী গোলাম দস্তগীর এমপি, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় ও রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সোনালীনিউজ/এসআই/টিআই