• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ০২ মার্চ, ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

ভাসানচরে বিশাল আয়োজনে পিকনিক, খুশি রোহিঙ্গারা


নিজস্ব প্রতিবেদক জানুয়ারি ২২, ২০২১, ০৯:২৮ পিএম
ভাসানচরে বিশাল আয়োজনে পিকনিক, খুশি রোহিঙ্গারা

নোয়াখালী: নোয়াখালীর হাতিয়ার ভাসানচরে ৪ হাজার রোহিঙ্গার জন্য পিকনিক, বিশেষ ভোজ, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহে আলম সাংবাদিকদের বলেন, নৌবাহিনীর পৃষ্ঠপোষকতায় ১০ হাজার কেজি চাল ও ২৮ মণ মাংস দিয়ে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানি করা হয়। বিকালে রোহিঙ্গাদের পরিবেশনায় বিশেষ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।ভাসানচরে আসা রোহিঙ্গারা দিনব্যাপী আনন্দ উল্লাস করেন। তাদের আনন্দের খবর পেয়ে যাতে কক্সবাজারের রোহিঙ্গারা যাতে ভাসানচরে আসতে আগ্রহী হয়, সে জন্য এ আয়োজন।

বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী ৫নং ক্লাস্টারের পাশে খেলার মাঠে রোহিঙ্গাদের জন্য এ বিশেষ পিকনিক অনুষ্ঠিত হয়।মেজবানিতে রান্না করেন চট্টগ্রাম থেকে আসা ১৫ জন বাবুর্চি।রান্নায় ছিল আতপ চালের ভাত, মহিষের মাংসের ভুনা ও বুটের ডাল। এই ভোজের আয়োজন ছিল চরের প্রায় সাড়ে তিন হাজার রোহিঙ্গাদের জন্যে। ভোজনের শেষে ছিল হাতিয়া থেকে আনা মহিষের দুধের দই।

দুপুরের মধ্যেই শেষ হয় খেলার আয়োজন। বিস্কুট-মার্বেল এবং চকলেট দৌঁড়ে অংশ নিয়েছে রোহিঙ্গা শিশুরা। ছিলো মোরগ লড়াই ও সুঁই সুতার খেলা। শিশুদের পাশাপাশি অংশ নিয়েছে বড়রাও।

মেয়েদের বালিশ খেলায় জয়ী জেসমিন বলেন, মিয়ানমারে আমরা সেনাবাহিনীর ভয়ে ঘর থেকে বের হতাম না। ভাসানচরে আমাদের কোনো ভয় নাই। এমন আনন্দ আমি জীবনেও করিনি। 

ছেলেদের ২০০ মিটার দৌঁড়ে জয়ী মোহাম্মদ হোসেন বলেন, অনেক খুশি লাগছে। মনে হচ্ছে ঈদের দিন।

উল্লেখ্য, বর্তমানে ভাসানচরে ৩ হাজার ৭৬২ জন রোহিঙ্গা বসবাস করছেন। মায়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত এক লাখ রোহিঙ্গাকে ভাসানচর আশ্রয়ণ প্রকল্প-৩ এ স্থানান্তরের সরকারের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ভাসানচরে বসবাসরত রোহিঙ্গা ও অন্যান্যদের নিরাপত্তা বিধান ও আইন-শৃঙ্খলা নিশ্চিতকল্পে ভাসানচর থানা স্থাপিত হয়েছে।ভাসানচরে থানা গঠনের ফলে তাদের নিরাপত্তা বিধানসহ সামগ্রিক আইন-শৃঙ্খলা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। 

সোনালীনিউজ/আইএ