• ঢাকা
  • রবিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

যে প্রশ্নে রেগে গেলেন মির্জা ফখরুল


নিজস্ব প্রতিবেদক ডিসেম্বর ৮, ২০২২, ০১:৫৪ পিএম
যে প্রশ্নে রেগে গেলেন মির্জা ফখরুল

ঢাকা: রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ভেতরে বুধবার বিকাল সোয়া ৪টার পর পুলিশের একটি দল অভিযান শুরু করে। এর পর সাড়ে ৪টার দিকে সেখানে যান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি এ সময় ভেতরে ঢুকতে গেলেও পুলিশ ঢুকতে দেয়নি। পরে প্রায় ২০ মিনিট পর তাকে কার্যালয়ে ঢোকার অনুমতি দেয় পুলিশ। তবে কার্যালয়ে প্রবেশ না করে সামনে বসে পড়েন তিনি। পরে রাত ৮টার দিকে তিনি সেখান থেকে চলে যান।

এ সময় দলের নেতাকর্মী ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। তিনি বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে চেয়েছি। তারা (সরকার) ভয়াবহ ঘটনা ঘটিয়েছে। সমাবেশকে বানচাল করতেই এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। ঘটনার দায় সরকারকে নিতে হবে।

ফখরুল বলেন, পরিস্থিতি শান্ত করতে ডিএমপি কমিশনার আমাকে নয়াপল্টনে আসতে বলেছেন। অথচ আসার পর আমাকে অফিসে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

এ সময় একজন সাংবাদিক মহাসচিবকে জিজ্ঞেস করেন— এ পর্যন্ত বিএনপির কতজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এমন প্রশ্ন শুনে রেগে যান মহাসচিব। তিনি বলেন, আমি বলতে পারব না, আপনি কে, কতদিন ধরে সাংবাদিকতা করেন?

এর পর আবার বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে থাকেন মির্জা ফখরুল। এরই মধ্যে আরেকজন সাংবাদিক প্রশ্ন করেন— একটি রাজনৈতিক দলের পার্টি অফিসের মধ্যে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে এ বিষয়টি আপনি কীভাবে দেখছেন। এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল আবারও রেগে বলেন, আরে ধুর, বারবার একই প্রশ্ন করেন, আপনি এতক্ষণ শুনলেন না, আমি কি বললাম?

এদিকে বিএনপি ও পুলিশের সংঘর্ষের পর বৃহস্পতিবার অনেকটাই থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে রাজধানীর নয়াপল্টন এবং আশপাশের এলাকা। রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় ব্যারিকেড বসিয়ে চলছে পুলিশের তল্লাশি।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে নাইটিঙ্গেল ও ফকিরাপুল মোড়ে ব্যারিকেড বসিয়ে যানবাহন এবং সাধারণ মানুষের চলাচল বন্ধ করেছে পুলিশ। মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় অফিসে যাওয়ার পথে বিজয়নগর মোড়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে যেতে দেননি।

সোনালীনিউজ/আইএ

Wordbridge School