• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

স্কুলের মাঠ রক্ষার্থে মানারাতের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মানববন্ধন


নিজস্ব প্রতিবেদক  সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২, ০৫:২৯ পিএম
স্কুলের মাঠ রক্ষার্থে মানারাতের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মানববন্ধন

ঢাকা: মানারাত ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ও কলেজের মাঠ দখল ষড়যন্ত্রের  প্রতিবাদে 'মানারাত স্কুল বাঁচাও, আগামী প্রজন্ম বাঁচাও' ব্যানারে মানববন্ধন করেছে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় গুলশানের মানারাত স্কুল ও কলেজের সামনে সচেতন নগরবাসী ও অভিভাবকবৃন্দের ব্যানারে মানববন্ধন করেন তারা।

মাববন্ধনে মানারাত স্কুল ও কলেজের কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা তাদের খেলার মাঠ দখলের ঘৃণ্য প্রতিবাদ জানিয়ে নানারকম প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করেন। শিক্ষার্থীরা তাদের খেলার মাঠ ছেড়ে না দেওয়ার কথা বলেন।

ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা বলেন, 'আমরা আমাদের খেলার মাঠ ছাড়ব না। '

মানববন্ধনে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ‘স্কুল হচ্ছে মানুষ গড়ার কারখানা, ভালো মানুষ গড়তে ভালো স্কুলের বিকল্প নেই’ 'মানারাত স্কুলের মাঠ থাকবে, দখলকারীরা পিছু হটবে’ ‘একটি শিশু একটি চারাগাছ, তাকে মহীরুহ করে তুলতে চাই একটি ভাল স্কুল’ 'শিশুর মেধা ও মনোবিকাশে সহযোগিতা করুন’ -এরকম লেখা সম্বলিত প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করে প্রতিবাদ জানান।

এক নারী অভিভাবক বলেন, ‘আমি আজ স্কুলে এসে জানতে পারলাম এই মাঠ দখল হয়ে যাবে।  আমরা এই স্কুলকে নষ্ট হয়ে যেতে দিতে চাই না। আমাদের বাচ্চাদের এই মাঠের জন্য এখানে ভর্তি করিয়েছিলাম, যাতে ওরা একটা ভালো পরিবেশ পায়। আমি জানতে চাই আজকে কেন ছোট ছোট বাচ্চাদের জীবন নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে? যে সকল অভিভাবক বাসায় আছেন তারা চলে আসুন, আপনাদের অধিকারের কথা বলুন, আমাদের বাচ্চাদের জীবন নিয়ে খেলা হচ্ছে।'

আরেক শিক্ষার্থীর অভিভাবক বলেন, 'স্কুলের মাঠ রক্ষার বিষয়ে আমরা এখানে সবাই একমত, আমরা যে কোনো কিছুর বিনিময়ে এই মাঠ রক্ষা করব।'

মানববন্ধনে অভিভাবকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন , ফাতেমা বেগম,  জানে আলম, সুইটি আক্তার, ইসমাইল হোসেন প্রমুখ।

অভিভাবকরা আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, 'একটি মহল আশুলিয়ায় অবস্থিত স্থায়ী ক্যাম্পাসের পরিবর্তে মানারাত ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের জমিতে মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস প্রতিষ্ঠার তৎপরতা চালাচ্ছে। এটি বাস্তবায়িত হলে মানারাত ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে।'

তারা বলেন, 'আমরা জানি মানারাত ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ যে জমির উপর প্রতিষ্ঠিত রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নগর পরিকল্পনায় জায়গাটি স্কুল ল্যান্ড হিসাবে দেখানো আছে। মানারাত ট্রাস্ট রাজউকের সঙ্গে এখানে স্কুল প্রতিষ্ঠায় চুক্তিবদ্ধ।'

চুক্তির ২২ নম্বর শর্ত মোতাবেক মানারাত ট্রাস্ট এই জমি অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানকে (মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি) দান করা বা বিক্রি করার অধিকার লিজ গ্রহণকারী হিসেবে থাকবে না। এবং রাজউক মানারাত ট্রাস্টের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকা অবস্থায় অন্য কারো সঙ্গে এই জমি ব্যবহারের অনুমতি প্রদান করতে পারে না। তাই গুলশানের ডিপ্লোম্যাটিক জোনে স্কুলের জন্য নির্ধারিত এই জমিতে মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস স্থানান্তরের প্রচেষ্টা আইনানুগ এবং এখানকার অধিবাসীদের জন্য কল্যাণকর নয়।

এমতাবস্থায়, এই প্রতিষ্ঠানটির সুষ্ঠু পরিচালনার স্বার্থে এবং প্রায় চার হাজার শিক্ষার্থীর শিক্ষা কার্যক্রম নিরবচ্ছিন্ন রাখতে মানারাত ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের জমি নিয়ে চলমান উদ্বেগ নিরসনে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট বিনীত অনুরোধ করেন অভিভাবকবৃন্দ।

সোনালীনিউজ/এম

Wordbridge School