• ঢাকা
  • রবিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

নিরাপত্তা ঝুঁকিতে অ্যান্ড্রয়েডভিত্তিক স্মার্টফোন


প্রযুক্তি ডেস্ক ডিসেম্বর ৬, ২০২২, ১০:২১ এএম
নিরাপত্তা ঝুঁকিতে অ্যান্ড্রয়েডভিত্তিক স্মার্টফোন

ঢাকা: গুগলের অ্যান্ড্রয়েডভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত কয়েক মিলিয়ন স্মার্টফোনে নিরাপত্তা ঝুঁকি দেখা দিয়েছে। আর্ম হোল্ডিংসের নির্মিত মালি জিপিইউ ব্যবহারকারী অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে এই নিরাপত্তা ঝুঁকি দেখা দিয়েছে। পাশাপাশি মিডিয়াটেক চিপসেট ব্যবহার করা স্যামসাং এবং এলজি ব্র্যান্ডের কিছু স্মার্টফোনও রয়েছে এ তালিকায়।

গেল সপ্তাহে গুগলের ‘প্রজেক্ট জিরো’ নিরাপত্তা দল স্মার্টফোনগুলোতে এমন নিরাপত্তা ঝুঁকি শনাক্ত করে।

দলটি জানায়, মালি জিপিইউ দীর্ঘদিন ধরে ‘আনপ্যাচড’ অবস্থায়ই স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে তৃতীয় পক্ষ বা হ্যাকার ডিভাইসে সাইবার আক্রমণের চেষ্টা করতে পারে, যা সফলও হতে পারে।

অন্যদিকে গুগলের আরেক কর্মী প্রকৌশলী লুকাজ সিয়েরিস্কি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে আরেকটি নিরাপত্তা ঝুঁকি শনাক্ত করেন। তিনি দেখান, অ্যান্ড্রয়েডের একটি সার্টিফিকেট অনলাইনে ‘লিক’ হয়ে যায়। এই সার্টিফিকেট দেখে হ্যাকাররা বিশেষ প্রোগ্রাম ডিজাইন করতে পারে।

এই সার্টিফিকেট দেখে অ্যাপ প্রোগ্রাম করা এবং তার মাধ্যমে ম্যালওয়্যার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে দেওয়া হলে, সে বিষয়ে ডিভাইসের নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান বা ব্যবহারকারী কেউই কিছু নাও জানতে পারেন।

পরে তৃতীয় পক্ষের সেসব অ্যাপ অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে ইন্সটল করা হলে ঝুঁকিতে পড়তে পারে ডিভাইসগুলোর নিরাপত্তা। লুকাজ জানান, অ্যান্ড্রয়েডের ওইএম সার্টিফিকেট অনলাইনে প্রকাশ পেয়ে যায়।

এই সার্টিফিকেট দেখে অ্যাপ প্রোগ্রাম করা এবং তার মাধ্যমে ম্যালওয়্যার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে দেওয়া হলে, সে বিষয়ে ডিভাইসের নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান বা ব্যবহারকারী কেউই কিছু নাও জানতে পারেন।

তবে এই নিরাপত্তা ঝুঁকি নিয়ে এরই মধ্যে স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী ব্র্যান্ডগুলোকে গুগলের পক্ষ থেকে সতর্ক করা হয়েছে বলে প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে। অন্যদিকে বিষয়টি সম্পর্কে ২০১৬ সাল থেকেই অবগত আছে বলে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক স্যামসাং। এমন প্রেক্ষাপটে নিরাপত্তা নিশ্চিতে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলেও দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

সোনালীনিউজ/এম

Wordbridge School