• ঢাকা
  • রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮

না ফেরার দেশে বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার


ক্রীড়া ডেস্ক সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১, ০৭:১৬ পিএম
না ফেরার দেশে বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার

ঢাকা: না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন ইংল্যান্ডের সাবেক কিংবদন্তি ফুটবলার জিমি গ্রিভস। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। ইংল্যান্ডের সাবেক ফরোয়ার্ড ও টটেনহ্যাম হটস্পারের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি।

নিজ বাড়িতে রোববার সকালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ১৯৬৬ সালে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য গ্রিভস। নিজেদের ওয়েবসাইটে ক্লাব কিংবদন্তির মৃত্যুর খবর জানায় টটেনহ্যাম। 

“গ্রেট জিমি গ্রিভসের মৃত্যুর খবরে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। তিনি শুধু টটেনহ্যাম হটস্পারের রেকর্ড গোলস্কোরারই নন, দেশের (ইংল্যান্ডের) ইতিহাসের দারুণ মার্কসম্যানও। জিমি আজ (রোববার) সকালে ৮১ বছর বয়সে তার বাড়িতে মারা যান।” চেলসিতে পেশাদার ফুটবল জীবন শুরু করা গ্রিভস তার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে ভালো সময় কাটিয়েছেন টটেনহ্যামে। বল পায়ে প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে সবসময়ই ভয়ঙ্কর ছিলেন গ্রিভস।

চার বছরের চেলসি ক্যারিয়ারের শেষ মৌসুমে (১৯৬০-৬১) ফার্স্ট ডিভিশনে ৪১ গোল করেছিলেন তিনি, এক মৌসুমে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের দলটির হয়ে যা এখনও রেকর্ড। ১৯৬১ সালে যোগ দেন এসি মিলানে। সেখানে ১৪ ম্যাচে ৯ গোল করার পর ওই বছরই টটেনহ্যামে যোগ দেন তিনি।

এই ক্লাবের হয়ে অভিষেক ম্যাচেই ব্ল্যাকপুলের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন। নর্থ লন্ডনের ক্লাবটির হয়ে ১৯৬১ থেকে ১৯৭০ সাল পর্যন্ত সময়ে ৩৭৯ ম্যাচ খেলে করেন ক্লাব রেকর্ড ২৬৬ গোল। ১৯৬২-৬৩ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে তার করা ৩৭ গোল এখনও টটেনহ্যামের ইতিহাসে লিগে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ। টটেনহ্যামে যোগ দেওয়ার কয়েক মাস পরই ১৯৬২ সালে এফ কাপ জিতে সিনিয়র ফুটবলে প্রথম শিরোপার স্বাদ পান গ্রিভস।

সোনালীনিউজ/এআর

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System