• ঢাকা
  • বুধবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮

রেফারি বড় ডাকাতি করেছে : জামাল ভূঁইয়া


ক্রীড়া ডেস্ক অক্টোবর ১৪, ২০২১, ১২:৫৭ এএম
রেফারি বড় ডাকাতি করেছে : জামাল ভূঁইয়া

ঢাকা : জয়ের আশা নিয়ে যখন ১০ জনের দল নিয়ে নেপালের বিপক্ষে লড়াই করে চলছিল বাংলাদেশ, হঠাৎ রেফারির পেনাল্টির সিদ্ধান্তে দৃশ্যপট চেঞ্জ হয়ে গেছে। পেনাল্টি থেকে গোল হজম করে ড্রয়ের হতাশা নিয়ে সাফ থেকে বিদায় নেয় লাল-সবুজরা।

রেফারির এই সিদ্ধান্ত নিয়ে সরাসরি প্রশ্ন তুলেছেন জাতীয় দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া।

দলের সঙ্গে ‘বড় ডাকাতি’ হয়ে উল্লেখ করে টুইটারে নিজের উদ্বেগ প্রকাশ করেন অধিনায়ক।

জামাল বলেন, ‘আমার মনে হচ্ছে যে, আমাদের বড় ডাকাতি করা হয়েছে আজকে।’

ম্যাচের ৮৮ মিনিটে নেপালের পক্ষে পেনাল্টি দেন রেফারি।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ডান প্রান্ত থেকে ভেসে আসা বল হেড করার চেষ্টা করেন নেপালের ফরোয়ার্ড অঞ্জন বিস্তা। লাফ দিয়েও বলের ফ্লাইট মিস করেন তিনি। পেছন থেকে কিছুটা ধাক্কা দিয়েছেন বাংলাদেশের মিডফিল্ডার সাদ উদ্দীন।

বলের ফ্লাইট মিস করে বলা যায় সাদের ধাক্কাটাকে ‘নকল ডাইভের’ মাধ্যমে ফাউলে পরিণত করার চেষ্টা করেন বিস্তা। পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দিয়ে বসেন উজবেকিস্তানের রেফারি আখর রিসকুয়ালেভ।

পেনাল্টির সিদ্ধান্তটা মোটেও মেনে নিতে পারছেন না জামাল। এএফসি ও সাফকে মেনশন করে তিনি আক্রোশ ঝাড়েন এভাবে, ‘এটা লজ্জার বিষয় যে সাফে ভিএআর নেই। রেফারি ছাড়া সবাই দেখতে পেয়েছে যে ওটা পেনাল্টি ছিল না।’

ভার্চুয়াল অ্যাসিস্টেন্ট রেফারি বা ভিএআর প্রযুক্তি থাকলে রেফারির সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করার সুযোগ থাকত বাংলাদেশের। বছর ছয়েক ধরে ইউরোপে নিয়মিত ব্যবহার হয়ে আসছে এটি।

গোল করে দল এগিয়ে থাকার পর লাল কার্ডের ট্র্যাজেডি ও ম্যাচের অন্তিম মুহূর্তে রেফারির এমন সিদ্ধান্তে হতাশ জামাল।

তিনি বলেন, ‘আমি আমার দল নিয়ে গর্ব করি এবং একই সঙ্গে আমি অনেক হতাশ।’

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System