• ঢাকা
  • শনিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বড় লজ্জা দিল ইংল্যান্ড


ক্রীড়া ডেস্ক অক্টোবর ২৩, ২০২১, ০৯:৩২ পিএম
ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বড় লজ্জা দিল ইংল্যান্ড

ঢাকা: গতবারের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে কম রানে অলআউটের লজ্জা দিল ইংল্যান্ড। প্রায় সাড়ে পাঁচ বছর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে হেরেছিল ইংলিশরা। তাও শেষ ওভারে চারটি ছক্কা হজম করে।

সেই হারের পর টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে আরও চারটি ম্যাচ খেলেছে ইংল্যান্ড, যেখানে জিতেছে তিনটিতেই। কিন্তু বিশ্বকাপের প্রতিশোধ তো আর মেটেনি। তাই তো বিশ্বকাপের ম্যাচে মুখোমুখি হয়ে ক্যারিবীয়দের বিধ্বস্ত করলো ইয়ন মরগ্যানের দল।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটারদের নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করেছেন ইংলিশ বোলাররা। ইংলিশদের বোলিং তোপে মাত্র ৫৫ রানে অলআউট হয়ে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই প্রথম একশ রানের নিচে অলআউট হলো দুইবারের চ্যাম্পিয়নরা। এর আগে বিশ্বকাপে তাদের সর্বনিম্ন দলীয় সংগ্রহ ছিলো ২০০৯ সালের আসরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১০১ রানে অলআউট হওয়া।

আর সবমিলিয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এটি ক্যারিবীয়দের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন স্কোর। ২০১৯ সালের মার্চে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪৫ রানে অলআউট হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এবার সেটি টপকে গেলেও বিশ্বকাপে নিজেদের সর্বনিম্ন রান টপকাতে পারেনি কাইরন পোলার্ডের দল।

এছাড়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তৃতীয় সর্বনিম্ন রানে অলআউট হয়েছে ক্যারিবিয়রা। টস হেরে ব্যাট করতে নামা ক্যারিবীয়রা ইনিংসের ৯ ওভারে হারিয়ে ফেলে ৬ উইকেট। এরপর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি।  

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মইন আলির করা প্রথম ওভারের শেষ বলে বিশাল এক ছক্কা হাঁকান এভিন লুইস। পরের ওভারে ক্রিস ওকসের বলেও একই লক্ষ্যে ব্যাট চালান তিনি। কিন্তু আকাশে উঠে যাওয়া সেই শটে ক্যাচ ধরতে ভুল করেননি আগের ওভার ছক্কা হজম করা মইন।

তিন নম্বরে নামেন গেইল। প্রথম দুই বলে রান নিতে পারেননি তিনি। মুখোমুখি তৃতীয় ও চতুর্থ বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে তিনিও বার্তা দেন ভালো কিছুর। কিন্তু সেই দুই বাউন্ডারির পর যেনো খোলসবন্দী হয়ে পড়েন ইউনিভার্স বস।

টুকটুক করতে থাকা গেইলকে অন্যপ্রান্তে রেখেই সাজঘরের পথ ধরেন লেন্ডল সিমনস (৭ বলে ৩) ও শিমরন হেটমায়ার (৯ বলে ৯)। 

গেইল সাজঘরে ফেরেন পাওয়ার প্লে'র শেষ ওভারের শেষ বলে। পাওয়ার প্লে'র ছয় ওভারে চার উইকেট হারানো ক্যারিবীয়রা পরের তিন ওভারে হারায় আরও দুই উইকেট। ইনিংসের অষ্টম ওভারে ব্রাভো আউট হন ৫ রান করে। পরের ওভারে সাজঘরে ফেরার আগে নিকোলাস পুরান করেন ৯ বলে ১ রান।

শেষ দিকে আরেক বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান আন্দ্রে রাসেলও ব্যাট হাতে সুবিধা করতে পারেননি। ফিরেছেন শূন্য রানেই। অধিনায়ক পোলার্ডও দলের হাল ধরতে পারেননি। ইংল্যান্ডের সেরা বোলার আদিল রশিদ। ৪ ওভারে ২ রান দিয়ে শিকার করেছেন ৪ উইকেট। এছাড়া মঈন আলী ও টাইমাল মিলস নিয়েছেন দুটি করে উইকেট।

সোনালীনিউজ/এআর

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System