• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮

ফিরছেন সাকিব, যেমন হবে একাদশ


ক্রীড়া ডেস্ক ডিসেম্বর ৩, ২০২১, ০৩:৩১ পিএম
ফিরছেন সাকিব, যেমন হবে একাদশ

ঢাকা: বিশ্বকাপে পাওয়া হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ছিলেন না সাকিব আল হাসান। এরপর প্রথম টেস্টের দলে থাকলেও শেষ মুহূর্তে ছিটকে যান ফিট না হওয়ায়। ফিট হওয়ায় দ্বিতীয় টেস্টের দলে রাখা হয় তাকে। মিরপুরে ৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে সিরিজের শেষ টেস্ট।

গতকাল বৃহস্পতিবার মিরপুর স্টেডিয়ামে দুই দফা অনুশীলন করেছেন সাকিব। প্রথমে একাই কিছুক্ষণ নেটে অনুশীলন করেছেন। পরে কোভিড পরীক্ষা করিয়ে নেগেটিভ সনদ নিয়ে আবার দলের সঙ্গে অনুশীলন করেন। সাকিবের ফেরাটা যে বাংলাদেশ দলকে অন্য রকম শক্তি আর প্রেরণা জোগাবে, সেটি না বললেও চলছে। কাল সাকিব দলে ফিরলে বাংলাদেশের একাদশ কেমন হতে যাচ্ছে?

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ব্যাটিংয়ে বড় ভোগা ভুগেছে বাংলাদেশ দল। টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যান-সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, মুমিনুল হক আর নাজমুল হোসেন ছিলেন আগাগোড়াই ব্যর্থ। ঢাকা টেস্টের আগেই টাইফয়েডে আক্রান্ত হয়ে ছিটকে গেছেন সাইফ। 

সাকিব দলে ফেরায় বাংলাদেশকে এখন ভাবতে হচ্ছে উদ্বোধনী জুটি নিয়ে। সাদমানের সঙ্গী কে হবেন। ২০ জনের অদ্ভুত স্কোয়াডে একাধিক বিকল্প থাকলেও (মোহাম্মদ নাঈম ও মাহমুদুল হাসান) তাদের খেলানোর কোনো কারণ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। সেক্ষেত্রে টেস্ট ক্যারিয়ারে এখন পর্যন্ত উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে না খেলা নাজমুল হোসেন সাদমানের সঙ্গী হতে পারেন। সাকিব খেললে তারই সাদমানের সঙ্গে ওপেন করার সম্ভাবনা বেশি বলেই দলীয় সূত্রে মনে হচ্ছে।

ঢাকা টেস্টে পেস বোলিংয়েও পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা আছে। চোট কাটিয়েছেন কয়েক মাস ধরে টেস্টে ভালো বোলিং করা তাসকিন আহমেদ। চট্টগ্রামে আবু জায়েদ যেমন বোলিং করেছেন, তাতে ঢাকা টেস্টে তার বাদ পড়ার সম্ভাবনা আছে। ইবাদত পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানদের জন্য বড় হুমকি হতে না পারলেও দুটি উইকেট তুলে নিয়েছিলেন। সে কারণে হয়তো ঢাকা টেস্টে তাকে রেখেই একাদশ সাজানো হতে পারে। 

সাদমানের সঙ্গে নাজমুলকে ধরলে তিন নম্বরে খেলবেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। চট্টগ্রামে ভালো করেননি। তবে ঢাকায় তিনি নিজেকে মেলে ধরতেই চাইবেন। চারে মুশফিকুর রহিম খেলবেন-এটা নিশ্চিত। পাঁচে খেলবেন সাকিব। ছয় আর সাত লিটন দাস ও ইয়াসির আলীর জন্য।

জায়গা অদলবদল করে অথবা ইয়াসিরকে সাতে পাঠানো হতে পারে। এরপর আটে থাকবেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তাইজুলের জায়গা নয় নম্বরে। দশ ও এগারোতে দুই পেসার হিসেবে তাসকিন ঢুকে পড়তে পারেন আবু জায়েদের জায়গায়। আরেক পেসার হিসেবে ইবাদতেরই যে খেলার সম্ভাবনা বেশি, সেটি আগেই বলা হয়েছে। 

সোনালীনিউজ/এআর

Haque Milk Chocolate Digestive Biscuit
Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System