• ঢাকা
  • বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯

ফাইনালে ভারত-বাংলাদেশের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই


ক্রীড়া ডেস্ক আগস্ট ৫, ২০২২, ১০:০৭ পিএম
ফাইনালে ভারত-বাংলাদেশের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই

ঢাকা: ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের কলিঙ্গা স্টেডিয়ামে সাফ অনূর্ধ্ব-২০ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাতে ভারতের মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। 

প্রথমার্ধের খেলা ১-১ গোলের নিয়ে শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের খেলাও ২-২ গোলের সমতা নিয়ে শেষ হয়েছে। ম্যাচ গড়িয়েছে অতিরিক্ত সময়ে।

ফাইনালে ম্যাচের ২০ সেকেন্ডেই এগিয়ে যায় ভারত। এ সময় ভারতের হিমাংশু জাংগ্রা ডি বক্সের বাইরে থেকে গোলপোস্টে আচমকা শট নেন। সেটা ঠিকভাবে ধরতে পারেননি বাংলাদেশের গোলরক্ষক মো. আসিফ। বল সামনে চলে আসে। সেটাতে কিক নিতে যান ভারতের গুরকিরাত সিং। আর আসিফ আসেন ধরতে। তার পায়ে লেগে ভূপাতিত হন গুরকিরাত, মালদ্বীপের রেফারি হুসাইন সিনান পেনাল্টির বাঁশি বাজান।

পেনাল্টি থেকে গুরকিরাত গোল করে এগিয়ে নেন দলকে। প্রথমার্ধের শেষ মুহূর্তে (৪৫ মিনিটে) সমতা ফেরায় বাংলাদেশ। এ সময় বাংলাদেশের রফিকুল ইসলাম ডানদিক দিয়ে আক্রমণে ওঠেন। ডি বক্সের ভেতরে ঢুকে শট নেন।

বল ভারতের রক্ষণভাগের খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে চলে আসে রাজনের কাছে। রাজন জটলার মধ্য থেকে ডান পায়ে শট নিয়ে বল জালে জড়িয়ে সমতা ফেরান। তাতে ১-১ গোলের সমতা নিয়ে শেষ হয় প্রথমার্ধের লড়াই।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। ৪৭ মিনিটের মাথায় ফ্রি কিক পায় বাংলাদেশ। ফ্রি কিক থেকে ইমরান খানের নেওয়া শট ডি বক্সের মধ্যে ভারতের রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ভিবিন ক্লিয়ার করার চেষ্টা করেন। বল উপরে উঠে যায়। সেটাতে হেড দিয়ে সামনে থাকা শাহীনের কাছে দেন জনি। শাহীন জোরালো শটে জালে পাঠান বল।

৫৯ মিনিটে সমতা ফেরায় ভারত। এ সময় ডি বক্সের মধ্য থেকে বাংলাদেশের মো. তানভীর হোসেন হেড দিয়ে বল ক্লিয়ার করেন। সেটা পেয়ে যান বক্সের সামনে ভারতের গুরকিরাত। ডান পায়ের জোরালো শট জালে আশ্রয় নেয়। চলতি আসরে এটা ছিল তার ষষ্ঠ গোল। আর এই ম্যাচে দ্বিতীয়।

এরপর এগিয়ে যেতে মরিয়া হয়ে চেষ্টা চালাতে থাকে উভয় দল। কিন্তু আর কোনো গোল হয়নি। তাতে ২-২ গোলের সমতা নিয়েই শেষ হয় নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা। আর ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।

সোনালীনিউজ/এআর

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System