• ঢাকা
  • রবিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

এই অভিশাপ কি কাটাতে পারবেন নেইমার-ভিনিসিয়ুসরা


ক্রীড়া ডেস্ক ডিসেম্বর ৮, ২০২২, ০২:৫৮ পিএম
এই অভিশাপ কি কাটাতে পারবেন নেইমার-ভিনিসিয়ুসরা

ঢাকা: ব্রাজিল সর্বশেষ বিশ্বকাপ জিতেছে ২০০২ সালে। এরপর চারটি বিশ্বকাপে তিনবার কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে ব্রাজিল। তিনবারই ইউরোপের কোনো না কোনো দলের কাছে হেরে বাদ পড়েছে। 

২০০৬ বিশ্বকাপ কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ ছিল ফ্রান্স। সে বিশ্বকাপে ‘চতুষ্টয়’ আক্রমণভাগ নিয়ে বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন দেখেছেন ‘সেলেসাও’রা-রোনালদো, রোনালদিনিও, কাকা ও আদ্রিয়ানো। 

কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালে জিনেদিন জিদানের একক নৈপুণ্যে হার মেনেছিল ব্রাজিল। ৫৭ মিনিটে থিয়েরি অঁরির গোলে ১-০ ব্যবধানের হারে দেশে ফিরেছিল আগেরবারের চ্যাম্পিয়নরা। এরপর পালাবদল শুরু হয় ব্রাজিলিয়ান ফুটবলে।

তাইতো শেষ আটে ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে ইউরোপের ‘ভূত’ তাড়াতে চায় ব্রাজিল। যেটা ব্রাজিলের জন্য এক প্রকার অভিশাপ। 

২০১০ সালেও একই ঘটনা। কাকা ও রবিনিও থাকলে অন্যান্য পজিশনে নতুন খেলোয়াড় আনেন কোচ দুঙ্গা। কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ ছিল নেদারল্যান্ডস। ১০ মিনিটে রবিনিওর দেওয়া গোলে ব্রাজিলই এগিয়ে ছিল ম্যাচে। কিন্তু বিরতির পর ওয়েসলি স্নেইডারের জোড়া গোলে আবারও স্বপ্নভঙ্গ হয় ব্রাজিলের। ২-১ গোলে হেরে বিদায় নিতে হয়। 

সে ম্যাচে ডাচ তারকা আরিয়েন রোবেনকে বুট দিয়ে মাড়িয়ে ফেলিপে মেলোর লাল কার্ড দেখা গোটা টুর্নামেন্টে ব্রাজিলের কদর্য খেলার প্রতীকী দৃশ্য হয়ে থাকবে।

জাপান-কোরিয়ায় (২০০২) বিশ্বকাপ জয়ের পর একবারই সেমিফাইনালে উঠেছে ব্রাজিল। সেটি ঘরের মাঠে আয়োজিত ২০১৪ বিশ্বকাপ। বেলো হরিজেন্তোয় অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচ ব্রাজিল–সমর্থকেরা ভুলে যেতে চাইবেন। 

জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে ১৯৫০ বিশ্বকাপে ‘মারাকানাজ্জো’র পর ব্রাজিলিয়ান ফুটবলে সবচেয়ে বড় বিপর্যয় ডেকে এনেছিলেন ডেভিড লুইসরা। 

সেবার সেমিফাইনালে ইউরোপের দলের কাছে হারা ব্রাজিল কোয়ার্টার ফাইনালে কিন্তু লাতিন দল কলম্বিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল। ২-১ গোলের জয়ে সেমিফাইনালে উঠেছিল ব্রাজিল। নেইমার সে ম্যাচে মারাত্মক চোট পাওয়ায় সেমিফাইনালে খেলতে পারেননি।

চার বছর পর রাশিয়ায় কোয়ার্টার ফাইনালে বেলজিয়ামের সোনালি প্রজন্মের মুখোমুখি হয় তিতের ব্রাজিল। প্রথমে এগিয়ে গিয়েও পরে ২-১ গোলের হারে বিদায় নিতে হয় লাতিন দলটিকে। ইউরোপের দলগুলোর কাছে এমন হার নিয়ে কাল সংবাদ সম্মেলনে জানতে চাওয়া হয়েছিল ব্রাজিল তারকা ভিনিসিয়ুসের কাছে। 

আশার কথাই শোনালেন ভিনি, ‘সাম্প্রতিক বছরগুলোয় যা হয়েছে, সেসব পাল্টাতে আমরা বদ্ধপরিকর। আমরা কোয়ার্টার ফাইনাল জিতে সেমিফাইনালে উঠতে চাই। একটি করে ম্যাচ ধরে ধরে এগোতে চাই।’

সোনালীনিউজ/এআর

Wordbridge School