• ঢাকা
  • সোমবার, ২৭ জুন, ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯

ভারতেও সোলোগামি, নিজেকেই বিয়ে করছেন বিন্দু


নিউজ ডেস্ক জুন ৪, ২০২২, ১১:৫৯ এএম
ভারতেও সোলোগামি, নিজেকেই বিয়ে করছেন বিন্দু

ঢাকা : হইচই ফেলে দিয়েছেন ক্ষমা বিন্দু। তিনি ঘোষণা করেছেন, আগামী ১১ জুন, চিরাচরিত হিন্দু প্রথা মেনে তার বিয়ে হবে। তবে এই বিয়েতে তার কোনো সঙ্গী থাকবে না। কোনো ছেলে বা মেয়ের গলায় তিনি মালা পরাবেন না। তিনি বিয়ে করবেন নিজেকেই।

রীতিমত অনুষ্ঠান করে নিজেকে নিজে বিয়ে করার প্রবণতা বেড়ে চলেছে পশ্চিমে, যাকে বলা হয় ‘সোলোগামি’। সেই ঢেউ এবার ভারতে এসে পৌঁছেছে। সম্ভবত বিন্দুই হতে যাচ্ছেন প্রথম ভারতীয়, যিনি নিজেকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভারতে সোলোগামি আইনসিদ্ধ নয়। আইনত, বিন্দু নিজেকে বিয়ে করতে পারেন না। কিন্তু বিন্দু এই সব কথা ধর্তব্যের মধ্যেই আনছেন না। তিনি জানিয়েছেন, তার মা এই বিয়েতে মত দিয়েছেন।

বিন্দু জানিয়েছেন, তিনি একঘেঁয়ে বিয়ের প্রথা ভাঙতে চান, অন্যদের অনুপ্রাণিত করতে চান। বিশেষ করে তাদের, যারা ভালোবাসার মানুষ খুঁজতে গিয়ে ক্লান্ত।

বিন্দু নিজেকে বাইসেক্সুয়াল দাবি করে বলেন, এটাই হবে ভারতের প্রথম সোলোগামির উদাহরণ। একটা সময় এসে আমি অনুভব করতে পারি, আমার আর প্রিন্স চার্মিং খোঁজার দরকার নেই। আমি নিজেই নিজের রানি। তাই আমি ঠিক করেছি নিজেই নিজেকে বিয়ে করব।

তার পরিকল্পনা হলো, ‘১১ তারিখ আমি কনের সাজে সাজব। আমার বন্ধুরা আসবে। অনুষ্ঠান হবে। তারপর আমি শ্বশুরবাড়িতে যাব না, নিজের বাড়িতে ফিরে আসব। আমি একজন পুরোহিতকে ঠিক করেছি। তিনিই আমার বিয়ে দেবেন। ভারতে নিজেকে বিয়ে করার বিষয়টা চালু নেই। তাই আমি ঠিক করেছি, আমিই জনপ্রিয় করব। অনেকে আমার আইডিয়া পছন্দ নাও করতে পারেন। কিন্তু আমি জানি, আমি ঠিক করছি। আগে আমি ছেলে ও মেয়ের প্রেমে পড়েছি। কিন্তু এবার নিজের প্রেমে পড়তে চাই।’

তিনি বলেন, ‘নিজেকে বিয়ে করা মানে হল নিজেকে নিয়ে থাকার জন্য জীবন ধারণ ও লাইফস্টাইল বেছে নেওয়া প্রতিশ্রুতি; যা আপনাকে আরো প্রাণবন্ত, সুন্দর ও অনকে সুখী মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে সাহায্য করবে।’

গুজরাট হাইকোর্টের সিনিয়ার আইনজীবী কৃষ্ণকান্ত ভাখারিয়া বলেছেন, ভারতীয় আইন অনুসারে কেউ নিজেকে বিয়ে করতে পারে না। বিয়েতে দুইজন লাগে। সোলোগামি আইনসিদ্ধ নয়।

আইনজীবী চন্দ্রকান্ত গুপ্ত জানিয়েছেন, হিন্দু বিবাহ আইনে বিয়ের জন্য দুইজনকে লাগে। সোলোগামি আইনসিদ্ধ হতে পারে না।

নিজেকে বিয়ে করার ধারণাটি প্রথম খবরের শিরোনাম হয়েছিল প্রায় দুই দশক আগে। যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় সিরিজ সেক্স অ্যান্ড দ্য সিটির একটি চরিত্র ক্যারি ব্র্যাডশো ওই ধারণার অবতারণা করেন।

সেই থেকে এরকম শতাধিক বিয়ের খবর দুনিয়াবাসী পেয়েছে, আর তাদের বেশিরভাগই নারী। ফুলের তোড়া হাতে নববধূরা বিয়ের গাউন পরে গির্জার পথ ধরে হেঁটে গেছেন। কখনও কখনও পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে আনন্দে মেতেছেন। এর মধ্যে ব্যতিক্রম একটি ঘটনাও রয়েছে। ব্রাজিলের ৩৩ বছর বয়সী এক ফ্যাশন মডেল নিজেকে বিয়ের তিন মাস পর নিজেকে ডিভোর্সও দিয়েছিলেন।

নিজেকে বিয়ের প্রবণতা বিশ্বের অনেক জায়গায় ছড়িয়েছে। তবে ভারতে বিন্দুর আগে কারও কথা শোনা যায়নি। সে কারণে বিষয়টি নিয়ে এখন ভারতে চলছে তুমুল আলোচনা। -ডয়চে ভেলে ও বিবিসি

সোনালীনিউজ/এমটিআই

Wordbridge School
Sonali IT Pharmacy Managment System