• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১

ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন আইন পূণ:মূল্যায়নের সময় এসেছে


নিজস্ব প্রতিবেদক:  জুন ১১, ২০২৪, ০৪:০১ পিএম
ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন আইন পূণ:মূল্যায়নের সময় এসেছে

ঢাকা: দেশের শেয়ারবাজারের উন্নয়নে গত ১ দশক আগে স্টক এক্সচেঞ্জগুলোর মালিকানা থেকে ব্যবস্থাপনা (ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন) পৃথকের মাধ্যমে স্বতন্ত্র পরিচালকদের আনা হয়েছে। কিন্তু এই লম্বা সময়ে প্রকৃতপক্ষে স্টক এক্সচেঞ্জের কোন উন্নতি হয়নি। এমতাবস্থায় স্টক এক্সচেঞ্জের ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন আইন পূণ:মূল্যায়নের (রিভিউ) সময়ে এসেছে বলে দাবি ডিএসই ব্রোকার্স এসোসিয়েশনের (ডিবিএ)।

মঙ্গলবার (১১ জুন) প্রস্তাবিত বাজেট পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের উত্তরে ডিবিএ সভাপতি সাইফুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

স্টক এক্সচেঞ্জের উন্নয়নে ২০১৩ সালে মালিকানা থেকে ব্যবস্থাপনা (ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন) পৃথক করা হয়েছে। এতে স্বতন্ত্র পরিচালকদের আধিপাত্য ও সংখ্যাগরিষ্ঠতা দিয়ে এই আইন করা হয়েছে। এমনকি এখন স্টক এক্সচেঞ্জের পর্ষদে চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র পরিচালক থেকে নিতে হয়। এছাড়া ১৩ পরিচালনা পর্ষদের আসনে ৭জনই স্বতন্ত্র। কিন্তু তাদের ভূমিকা এখনো শেয়ারহোল্ডার পরিচালকদের থেকে কম। এর পেছনে রয়েছে শেয়ারবাজার সর্ম্পক্যে তাদের অজ্ঞতা। যাতে ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন পরবর্তী ১০ বছর পার হয়ে গেলেও কোন উন্নতি হয়নি।

সাইফুল ইসলাম বলেন, ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশনের পর গত ১০ বছরে স্টক এক্সচেঞ্জের কোনো উন্নতি হয়েছে? যদি না হয় ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন আইন রিভিউ করা উচিত। আমরা মনে করি ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন আইন রিভিউ করার সময় এসেছে।

এসময় ডিএসইর এক স্বতন্ত্র পরিচালকের শেয়ার কারসাজির বিষয়ে কেনো এখনো কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি এবং ডিবিএ এ বিষয়ে প্রশ্ন তুলেনি জানতে চাইলে ডিবিএ সভাপতি বলেন, বিষয়টি গণমাধ্যমের সহযোগিতায় আমরাও জানতে পেরেছি। এ বিষয়ে আশা করি ডিএসইর পর্ষদ কার্যকর ভূমিকা পালন করবে। তিনি শেয়ার ব্যবসা করতে পারেন না। সেটাও আবার কারসাজির শেয়ারগুলো নিয়ে।

এএইচ/আইএ

Wordbridge School
Link copied!