• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১

বাসা ভাড়া মওকুফ, আসল ঘটনা যা জানা গেল


নিউজ ডেস্ক এপ্রিল ২, ২০২৪, ০৪:১১ পিএম
বাসা ভাড়া মওকুফ, আসল ঘটনা যা জানা গেল

ঢাকা : সোমবার (১ এপ্রিল) সকাল থেকেই কম্পিউটারে টাইপ করা একটি চিঠি সামাজিক মাধ্যমে ঘুরতে থাকে। জনৈক নেটিজেন সেটি ফেসবুকে পোস্ট করেন।

জানান, তিনি যে বাসায় ভাড়া থাকেন সে বাসার মালিক ঈদ উপহার হিসেবে এক মাসের ভাড়া মওকুফ করে সেই চিঠিটা পাঠিয়েছেন। চিঠিতেও তেমনই লেখা ছিল যে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় ঈদ উপলক্ষে এক মাসের ভাড়া মওকুফ। নিচে রূপালি হাউজিংয়ের কথা লেখা ছিল।

নেটিজেন আলিমুর রহমান বাড়িওয়ালা থেকে পাঠানো চিঠিটি তার আইডিতে শেয়ার করে লেখেন, আমার বাড়িওয়ালার পক্ষ থেকে ঈদ উপহার... আমি আমার ঢাকা শহরের এই ছোট্ট জীবনে কেউ কখনো এমন উপহার পেয়েছেন কি না জানি না এবং শুনিনি কখনো- আমি অন্তত পাইনি। সম্পদের পাশাপাশি সুন্দর একটা আত্মা থাকাটা ও জরুরি একজন প্রকৃত মানুষ হওয়ার জন্য। আল্লাহ ওনাকে নেক হায়াত এবং দুনিয়া ও আখিরাতে উত্তম প্রতিদান দান করুন।

সামাজিক মাধ্যমে সকাল থেকেই হু হু করে ছড়িয়ে পড়তে থাকে চিঠির ছবিটি। অনেকেই বাড়িওয়ালার মানবিকতা দেখে প্রশংসায় ভাসান উক্ত মালিককে। দিনভর পোস্ট এর পর পোস্ট।

কিন্তু শেষমেষ জানা গেল, আসলে সেটি ভুয়া চিঠি। অবশ্য পোস্টকারী নেতীজেন, চার ঘণ্টা পর নিজেই চিঠিটি ফেসবুক থেকে সরিয়ে ফেলেন।

তবে এবার সাংবাদিকেরা সরেজমিনে সেই রূপালি হাউজিংয়ে চলে যান। সেখানেই থলের বিড়াল বেরিয়ে আসে। বাড়িওয়ালাই জানেন যে তিনি কারো ভাড়া মওকুফ করেছেন। তবে সেই বাড়ির কেয়ার টেকার বলছেন, বাড়িটিতে ভাড়াটিয়া কেউ থাকেন না। যারা থাকেন তারা সবাই আত্মীয় স্বজন। তাই ভাড়া মওকুফ করার প্রসঙ্গ আসেন।

এদিকে, রূপালি হাউজিংয়ের মালিকপক্ষের সুজন নামের এক ব্যক্তি মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) দুপুরে বলেন, আমি জানি না সেই চিঠি কিভাবে ছড়ানো হয়েছে, আমরা জানি না। এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি।

তবে আলিমুর রহমান বলছেন, বাড়িওয়ালা বিষয়টি গোপন রাখতে চান।

এদিকে, সামাজিক মাধ্যমে এই চিঠি নিয়ে তোলপাড় দিনব্যাপী চললেও অন্তত এটা জানা গেছে যে ভাড়া মওকুফ করা হলেও নিজেদের আত্মীয় স্বজনের ভাড়া মওকুফ করা হয়েছে।   

এমটিআই

Wordbridge School
Link copied!